ঢাকা, রবিবার   ২০ জুন ২০২১, || আষাঢ় ৭ ১৪২৮

লোকে লোকারণ্য মীরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:২০, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭

এ প্রজন্ম ইতিহাস সচেতন নয়, বা এ প্রজন্ম শুধু ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যস্ত এমন অভিযোগ অনেকেই করে থাকেন। কিন্তু মীরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে একবার আসলেই তারা বুঝতে পারবেন, তরুণদের নিয়ে তাদের ভাবনা অনেকটাই ভুল।

১৪ ডিসেম্বর সকাল থেকেই লোকারণ্য হয়ে আছে স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন এলাকা। এদের বড় একটি অংশ তরুণ। তাদের বেশীরভাগই স্কুল কলেজ বা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ভিড়।

সরকারের উর্ধ্বতন মহলসহ কর্মকর্তারা আনুষ্ঠানিকভাবে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর থেকেই জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয় স্মৃতিস্তম্ভ প্রাঙ্গণ। কিছুক্ষণের মধ্যেই কোথাও তিল ধারণের ঠাঁই পাওয়া যায় না।

তারা যে শুধু সময় কাটানোর জন্য বা দেখানোর জন্য এখানে এসেছেন তা কিন্তু নয়। তারা এব্যাপারে অত্যন্ত সচেতন।

একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতা করা এহসান নোমান বলেন, যতই দিন যাচ্ছে আমাদের জাতীয় জীবনে শোকাবহ ঘটনাটির গুরুত্ব ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে।

১৯৭১ সালের এই দিনে পাক হানাদার বাহিনী ও তার দোসর রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস সম্মিলিতভাবে বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের নির্মমভাবে হত্যা করে।

দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হাত-পা-চোখ বাঁধা ক্ষতবিক্ষত লাশ আজও অশ্রু ঝরায় স্বজন আর পুরো বাংলাদেশের চোখে।

তাই বিনম্র এবং শ্রদ্ধায় আজ জাতি শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করছে। দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন।


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি