ঢাকা, বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২, || মাঘ ৬ ১৪২৮

চা বাগানে হারিয়ে যাচ্ছে মৌলভীবাজারের বধ্যভূমি(ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:১৩, ২৮ মার্চ ২০১৮ | আপডেট : ১০:৪৪, ২৮ মার্চ ২০১৮

হারিয়ে যেতে বসেছে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের সবচে বড় বধ্যভুমি পাত্রখলা। বধ্যভুমির উপরই তৈরি করা হয়েছে চা-বাগান। অরক্ষিত আছে চৈত্রঘাট ও কালেঙ্গা বধ্যভুমিও। সংরক্ষণের অভাবে কালের গর্ভে হারিয়ে যাচ্ছে স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মৃতিময় স্থানগুলো।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ধলই নদীর পাশে এখনও দৃশ্যমান একটি বাংকারের একাংশ। ধলই ভ্যালী ক্লাবের বর্তমান গ্যারেজ ও বাংলো ছিলো পাক হানাদারদের টর্চার সেল। বাংলো থেকে কয়েকশ গজ দূরে এই জায়গাটিতেই বাঙালিদের ধরে এনে হত্যা করা হতো। এখন এ বধ্যভুমির উপরই গড়ে উঠেছে পাত্রখলা চা-বাগান।

এদিকে বধ্যভুমির উপর চা বাগান করায় ক্ষুব্ধ মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়রা। বধ্যভূমির অস্তিত্বের কথা জানেই না পাত্রখলা চা বাগান কর্তৃপক্ষ।

কমলগঞ্জের শমশেরনগর বিমানঘাঁটি, চৈত্রঘাট, দেওরাছড়া, কামুদপুর ও কালেঙ্গা এলাকায় হত্যা করা হয় বহু মানুষকে। কিন্তু সংরক্ষণের অভাবে নিশ্চিহ্ন হতে বসেছে চৈত্রঘাট ও কালেঙ্গা বধ্যভুমি। বাঙ্গালি চেতনার উৎস এসব বধ্যভূমি রক্ষিত না হলে, অচিরেই তা হারিয়ে যাবে অন্ধকারের অতল গহ্বরে। তাই স্মৃতিময় এ স্থানগুলো সংরক্ষণের দাবী উপজেলাবাসীর।

এমজে/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি