ঢাকা, রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৬:১০:৩৮

দেহের পাওয়ারহাউজ জাম

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০১:৩১ পিএম, ১৯ জুন ২০১৭ সোমবার | আপডেট: ০৯:১৫ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৭ মঙ্গলবার

দেহের পাওয়ারহাউজ নামে পরিচিত পুষ্টিগুণে ভরপুর ফলটির নাম জাম। খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে জানানো হয়, কালো রংয়ের কারণে প্রাচীনকাল জাম ছিল নিষিদ্ধ। তবে বর্তমানে এই ফল শক্তির আধার হিসেবে পরিচিত।

ভিটামিন সি

জামে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। এটি একটি অত্যাবশ্যকীয় পুষ্টি উপাদান যা মানবদেহ নিজ থেকে উৎপাদন করতে পারেনা। তাছাড়া শরীর থেকে দ্রুত ভিটামিন সি বের হয়ে যায় এবং দেহ এটি সংরক্ষণ করতে পারে না। তাই আমাদের নিয়মিত ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া প্রয়োজন।`

যুক্তরাজ্যের ‘ব্ল্যাককারেন্ট ফাউন্ডেশন’য়ের মতে, ভিটামিন সি দেহের কোষের স্বাস্থ্য ভালো রাখে, রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, ঠাণ্ডা দূর করে, স্মৃতি উন্নত করে এবং চোখের লেন্স’য়ে প্রোটিনের ক্ষয় দূর করে ছানি পড়া রোধ করে।

অল্প শর্করা

এই ফল রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায় না। তাই প্রতিদিন জাম খেলে টাইপ-ওয়ান ও টাইপ-টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়। প্রধান কারণ হচ্ছে জামের ‘গ্লাইসেমিক’ সূচক অনেক কম।

সুস্থ হার্ট

জামের ‘জিএলএ’ উপাদান উল্লেখযোগ্যভাবে রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি লোহিত রক্ত কণিকা বাড়ায় এবং সামগ্রিকভাবে হৃদয়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে। আঙ্গুরের মতোই এটি ‘ফ্লেইভানয়েড’য়ের ভালো উৎস যা হৃদসম্বন্ধীয় রোগের সম্ভাবনা কমায়।

ম্যাগনেসিয়াম ও অন্যান্য ভিটামিন

ম্যাগনেসিয়ামে ভরপুর জাম। যা রাতে ভালো ঘুম হতে সাহায্য করে। তাছাড়া এটি অনিদ্রা রোগের প্রাকৃতিক ওষুধ হিসেবে পরিচিত। ভিটামিন সি ছাড়াও এই ফলে রয়েছে ভিটামিন এ, বি ফাইভ, বি সিক্স, বি ওয়ান এবং ই। আরও আছে প্রদাহ নাশক উপাদান যা পেশির ব্যথা, অনমনীয়ভাব এবং ক্ষয় কমাতে সাহায্য করে।

হজমে সহায়তা

 জাম আঁশ সমৃদ্ধ। নারীদের জন্য দৈনিক ২৫ গ্রাম জাম খাওয়া ভালো। এতে অন্ত্র পরিষ্কার থাকে এবং হজমের কাজ উন্নত হয়। ভালো ব্যাকটেরিয়া উৎপাদন করতে, অন্ত্রের প্রদাহ কমাতে এবং নির্দিষ্ট ধরনের ক্যানসার দূর করতে সাহায্য করে।

জামের চা তৈরির পদ্ধতি

জামপাতাও উপকারী। তাই এই ফলের পাতা দিয়েও চা শরীরে পুষ্টি যোগাবে।

পদ্ধতি: ২৫০ মি.লি ফুটন্ত পানিতে দুই টেবিল-চামচ জামপাতার কুচি দিন। দুই মিনিট ধরে ফুটান। কড়া স্বাদ চাইলে আরও বেশি সময় ধরে জ্বাল দিতে পারেন। মিষ্টিভাবের জন্য এক টেবিল-চামচ শুকনা-জাম ফুটন্ত পানিতে দিন।


 
 

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি