ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৩০:২১

Ekushey Television Ltd.

বিষমুক্ত খাবারের সন্ধানে : পর্ব ১

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:৫৩ পিএম, ৬ অক্টোবর ২০১৭ শুক্রবার | আপডেট: ০১:০৫ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০১৭ শুক্রবার

ভেজালের ভিড়ে খাঁটি জিনিস যেন সোনার হরিণ। বিশেষ করে রাজধানী ঢাকায় সতেজ ও বিষমুক্ত নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য পাওয়াই দুষ্কর। উৎপাদন থেকে শুরু করে বিপণন পর্যন্ত ভেজাল আর ভেজাল। তবে দিন বদলাবে না, তাতো নয়। ভেজালের ভিড়েই আশার গল্প শোনাচ্ছেন গণমাধ্যমকর্মী দেলোয়ার।

কুষ্টিয়ার ছেলে দেলোয়ার জাহান ও তার বন্ধুরা মিলে ‘প্রাকৃতিক কৃষি’নামে একটি আন্দোলন শুরু করেছেন। সার ও কীটনাশক প্রয়োগ ছাড়াই কৃষকদের কৃষিকাজে উৎসাহিত করে চলেছেন তাঁরা। পাশাপাশি ঢাকার সলিমুল্লাহ রোডে প্রতিষ্ঠা করেছেন ভোক্তাদের জন্য ‘প্রাকৃতিক কৃষি বিপণন কেন্দ্র’ । যেখানে পাওয়া যাবে কীটনাশক প্রয়োগ ছাড়াই উৎপাদিত বিভিন্ন রকমের সবজি ও ফল। তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে সার ও কীটনাশকমুক্ত খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন, বিপনন এবং প্রাকৃতিক কৃষির বিষয়টি সবাইকে জানানো।

দেলোয়ার জাহান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতা বিভাগে পড়তে গিয়ে প্রাণ, প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষার বিষয়ে মনোযোগী হন। দেশের সাধারণ মানুষ কীভাবে প্রকৃতির সঙ্গে একাত্মতা বাড়াবে সে বিষয়ে মনোনিবেশ করেন। শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে আশার আলো দেখতে পাননি তিনি। অবশেষে দেলোয়ার ও তার বন্ধুরা মিলে একটি দল গঠন করেন।

নিজেদের মধ্যে আলাপ আলোচনা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশের গ্রামগুলোতে ঘুরে সাধারণ মানুষের জীবনধারা বোঝার চেষ্টা করেন তারা। ২০০৯ সালে পড়াশোনা শেষে জীবিকার টানে ঢাকায় এসে সাংবাদিকতা শুরু করেন দেলোয়ার। পরবর্তী সময়ে তাদের মধ্যে প্রাকৃতিক কৃষি নিয়ে কাজ করার প্রবণতা আরো বেড়ে যায়।

আলাপ আলোচনায় বিষয়টিকে সীমাবদ্ধ না রেখে ২০১৩ সালে মানিকগঞ্জের দৌলতপুরের আমতলা গ্রামে শুরু হয় দেলোয়ারদের বিষমুক্ত ফসলের আন্দোলন। কিন্তু নদী ভাঙ্গনের ফলে তাদের জমি হারিয়ে যায়।

এতে দমে যাননি তারা। পরে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে কিছু জমি নিয়ে আবার তারা শুরু করেন বিষমুক্ত ফসলের চাষ। দলের এক সদস্য ঢাকার চাকরি ছেড়ে চলে যান ঝিনাইদহে—নিজ এলাকায়। উদ্দেশ্য, এই আন্দোলনে কৃষকদের আরো কাছ থেকে সম্পৃক্ত করা। কিন্তু বিষমুক্ত ফসল ফলালেই তো সমস্যার সমাধান হবে না। এগুলোর সঠিকভাবে  বিপণন করতে না পারলে কৃষকেরা এ আন্দোলনের সাথে থাকবে না।

তাই কৃষক ও তাদের উৎপাদিত পণ্যগুলো মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য ২০১৪ সালে ঢাকর লালমাটিয়ায় ‘প্রাকৃতিক কৃষি বিপণন কেন্দ্র’ নামে একটি বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন করেন। তবে বর্তমানে স্থান পরিবর্তন করে এ বিক্রয়কেন্দ্রটি স্থাপন করা হয়েছে ৩/২৯ সলিমুল্লাহ রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকায়।

এই কৃষি বিপণন কেন্দ্রে আপনি পাবেন বিষমুক্ত শাক-সবজি, ফল, চাল, ডাল, হাতে ভাজা মুড়ি, মসলা, তেল, ঘি, দুধ, ডিমসহ নিত্য প্রয়োজনীয় আরোও বেশ কিছু পণ্য। বাসায় চাষের কাজে ব্যবহারের জন্য প্রাকৃতিক সারও পাওয়া যাবে এ কেন্দ্রে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে প্রাকৃতিক কৃষি বিপণন কেন্দ্রের প্রধান উদ্যোক্তা দেলোয়ার জাহান একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে সার ও কীটনাশক ছাড়াই কৃষি খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন করা এবং কৃষকদের এ ব্যাপারে উৎসাহিত করা। ভোক্তাদের বিষমুক্ত খাদ্যদ্রব্য নিশ্চিত করা ‘

এম/ডব্লিউএন

 

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি