ঢাকা, শুক্রবার   ২৭ নভেম্বর ২০২০, || অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

অস্টিওপোরোসিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে যারা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৩৩ ২১ অক্টোবর ২০২০ | আপডেট: ১৫:৩৪ ২১ অক্টোবর ২০২০

হাড়ের রোগগুলোর মধ্যে বর্তমানে অস্টিওপোরোসিস সবচেয়ে বেশি দেখা যাচ্ছে। এটি হাড়ের একটি ভয়ঙ্কর অসুখ! এই রোগে পুরুষদের তুলনায় মহিলারা বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকেন। অস্টিওপোরোসিস নিঃশব্দে ক্ষতি করে, তাই প্রথমে এ রোগের লক্ষণ বোঝা মুশকিল! তবে এই রোগ প্রতিরোধ করতে প্রথম থেকেই সাবধান হওয়া জরুরি।

আসুন জেনে নেওয়া যাক অন্যদের তুলনায় কাদের মধ্যে অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি বেশি...

অস্থিরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, যাদের বয়স ৪০-এর বেশি তাদের অস্টিওপোরোসিস হবার ঝুঁকি বেশি থাকে। বিশেষ করে মহিলাদের মেনোপজের পর শরীর থেকে ইস্ত্রোজেন হরমোন কম নিঃসৃত হয়। ফলে হাড় দুর্বল হয়ে পড়ে। তখন এই অসুখ হবার ঝুঁকি অনেকটাই বেড়ে যায়।

পরিবারে কারও, বিশেষ করে মায়ের যদি এই রোগ থেকে থাকে তাহলে এই অসুখ হবার আশঙ্কা থাকে। যারা রোদে কম বের হন তাদেরও এই অসুখ হতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, রোগা ও কম উচ্চতার মহিলাদের শরীরের হাড় বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দুর্বল হয়। ফলে তাদের অস্টিওপোরোসিস হবার ঝুঁকি বেশি থাকে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা অতিরিক্ত মাত্রায় কফি বা মদ্যপান করেন, তাদের এই রোগ হতে পারে। কারণ, ক্যাফেইন আর অ্যালকোহল শরীরে ক্যালসিয়ামের মাত্রা কমিয়ে দেয়। ফলে হাড় দুর্বল হয়ে পড়ে। বেড়ে যায় অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি।

অস্টিওপোরোসিসের উপসর্গ
* অস্থি ভঙ্গুর হয়ে যাওয়া, অস্থির ঘনত্ব কমতে থাকা।
* পিঠের পিছনে ঘন ঘন ব্যথা অনুভব করা।
* পেশির শক্তি কমতে থাকা।
* সামান্য পরিশ্রমেই হাড়ে ব্যাথা অনুভব করা ইত্যাদি অস্টিওপোরোসিসের প্রাথমিক লক্ষণ।

কিছু খাবার আছে যেগুলো হাড়ের অকাল ক্ষয়ের জন্য বিশেষভাবে দায়ী। কিন্তু আমরা অনেকেই নিজেদের অজান্তে প্রতিদিন এই সব খাবার খেয়ে চলেছি। আসুন জেনে নেওয়া যাক তেমন কয়েকটি খাবার বা খাদ্য উপাদানের কথা যেগুলো আমাদের হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

অতিরিক্ত লবণাক্ত খাবার
লবণ বা সোডিয়াম ক্লোরাইড দেহ থেকে ক্যালসিয়াম বের করে দিয়ে হাড়কে দুর্বল করে দেয়। চিপস, বিভিন্ন ফাস্ট ফুড, কাঁচা খাবারে বা সালাদে মেশানো লবণ হাড়ের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এ ছাড়াও খাবারে বাড়তি লবণ খাওয়ার অভ্যাসও হাড়ের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর!

ক্যাফেইন
অতিরিক্ত মাত্রায় চা ও কফি খাওয়ার অভ্যাসও হাড়ের অকাল ক্ষয়ের জন্য দায়ী। একাধিক গবেষণায় প্রমাণ মিলেছে, কফিতে থাকা ক্যাফেইন হাড়ের অকালে ক্ষয়ে যাওয়ার জন্য দায়ী।

অতিরিক্ত মাংস খাওয়া
মাংস হচ্ছে প্রাণীজ প্রোটিন। অতিরিক্ত মাংস মানেই অতিরিক্ত প্রোটিন। এই প্রোটিন শরীরে অতিরিক্ত অ্যাসিড তৈরি করে, যাকে নিস্ক্রিয় করতে ক্যালসিয়াম সক্রিয়ভাবে কাজ করে। অতিরিক্ত মাত্রায় প্রোটিন জাতীয় খাবার খাওয়ার ফলে হাড়ে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা দেয়।

সফট ড্রিংকস বা নরম পানীয়
সকলেরই পছন্দের পানীয় সফট ড্রিংকস প্রতিনিয়ত হাড় ক্ষয় করে চলছে। এই সব পানীয়তে রয়েছে ফসফরিক অ্যাসিড যা প্রস্রাবের মাধ্যমে দেহের ক্যালসিয়াম শরীর থেকে বের করে দেয়। ফলে হাড় অকালেই ক্ষয়ে যেতে থাকে।

কাজেই অস্টিওপোরোসিস রোগ থেকে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হাড় বাঁচাতে এইসব খাবার বর্জন করা বাঞ্ছনীয়।

এএইচ/এমবি


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি