ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে মামলায় প্রতিবেদন ২৮ জুলাই

 প্রকাশিত: ১৯:০১ ১৯ জুন ২০১৯  

অবৈধ গর্ভপাতের চেষ্টাসহ মারধরের অভিযোগে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিমের বিরুদ্ধে দায়ের করা তার ছেলের বউয়ের মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলে ২৮ জুলাই দিন ধার্য করেছেন আদালত। বুধবার (১৯ জুন) মামলাটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ধার্য ছিল। তবে মামলার তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) প্রতিবেদন জমা না দেওয়ায় ঢাকা মহানগর হাকিম মো. তোফাজ্জল হোসেন এ দিন ধার্য করেন।

গত ১১ মার্চ তার ছেলে সাফাত আহমেদের বউ ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় দিলদার আহমেদ সেলিম ছাড়াও আপন রিয়েল স্টেটের উপদেষ্টা মোখলেছুর রহমানকেও আসামি করা হয়।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, ২০১৫ সালে দিলদার হোসেনের ছেলে সাফাত আহমেদের সঙ্গে বিয়ে হয় ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরের গুলশান-২ এর বাসায় থাকতেন তিনি। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই তার শ্বশুর আসামি দিলদার শারীরিক ও মানসিকভাবে তাকে নির্যাতন শুরু করেন এবং তার স্বামীকে (সাফাত) তালাক দেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন। পাশাপাশি তার শ্বশুরসহ অপর আসামি তার গর্ভের সন্তান নষ্ট করতেও বিভিন্নভাবে চাপ দেয়।
মামলার বাদীর বর্তমানে দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা। স্বামীর অনেক অনৈতিক কাজে বাদী বাধা দিলেও শ্বশুর উল্টো তাকে উৎসাহিত করতেন এবং সহযোগিতা করতেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, গত ৫ মার্চ স্বামীর জন্য কিছু কেনাকাটা করার জন্য বাসা থেকে বের হন পিয়াসা। কেনাকাটা শেষে বাসায় ঢুকলে আসামিরা তাকে গালিগালাজসহ মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয়। সঙ্গে থাকা দুই লাখ টাকা, পাঁচ ভরি ওজনের সোনার নেকলেস, দুটি চুড়িসহ আনুমানিক ৮ লাখ টাকার দ্রব্যাদি জোর করে নিয়ে যায়।

এনএম/আরকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

শিরোনাম