ঢাকা, শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১১:৪৯:৪৭

দুই গৃহকর্মী সহ গ্রেফতার ৩

ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষ হত্যা মামলা

দুই গৃহকর্মী সহ গ্রেফতার ৩

ইডেন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যা মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজধানীর নিউমার্কেট থানার ওসি আতিকুর রহমান। গ্রেফতারকৃত তিনজন হলেন- রুমা ওরফে রেশমা (৩০), স্বপ্না (৩৫) ও রাশিদা (৫৫)। তাদের মধ্যে প্রথম দুজন মাহফুজা চৌধুরীর বাসার গৃহকর্মী ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই তারা পলাতক ছিলেন। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামি ছিলেন তারা। ওসি আতিকুর রহমান জানান, শুক্রবার বিকাল ৩টায় নিউমার্কেট থানায় এ বিষয়ে ব্রিফ করা হবে। প্রসঙ্গত, রোববার রাতে ঢাকা কলেজের সামনের বহুতল ভবন ‘সুকন্যা টাওয়ারে’ থেকে মাহফুজা চৌধুরী পারভীনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর তার বাসার দুই গৃহকর্মী পালিয়ে যায়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মাহফুজা চৌধুরীর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করা হয়। ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ঢামেকের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ জানান, শ্বাসরোধে মাহফুজা চৌধুরীকে খুন করা হয়েছে। দুই বা ততোধিক ব্যক্তি এই হত্যাকাণ্ডে অংশ নিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।পুলিশের ধারণা বাসার দুই গৃহকর্মীসহ অন্যরা এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। ঘটনার পর থেকে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।পুলিশের রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার গণমাধ্যমকে জানান, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, গৃহকর্মী রেশমা ও স্বপ্না এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। হত্যার পর ওই বাসা থেকে স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা-পয়সা লুট করে নিয়ে গেছে তারা। বাড়িটির নিচতলায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গেছে, বিকেল ৫টা ৬ মিনিটে দুই গৃহকর্মী লিফট থেকে নেমে বেরিয়ে যাচ্ছে।পরদিন মাহফুজা চৌধুরী পারভীন হত্যার ঘটনায় নিউমার্কেট থানায় মামলা করেন তার স্বামী ইসমত কাদের চৌধুরী। মামলার আসামিরা হল-রূপা ওরফে রেশমা ও স্বপ্না। অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকেও মামলায় আসামি করা হয়।মাহফুজা চৌধুরীর স্বামী ইসমত কাদির জানান, এলিফ্যান্ট রোডের সুকন্যা টাওয়ারের ১৫ ও ১৬ তলার ডুপেক্স ফ্ল্যাটে স্ত্রীকে নিয়ে তিনি থাকতেন। তাদের দুই ছেলে দেশের বাইরে থাকেন। রোববার সকাল ১০টার দিকে তিনি ব্যক্তিগত কাজে বাইরে যান। ওই সময় বাসায় রেশমা ও স্বপ্নাসহ তিনজন গৃহকর্মী ছিল। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাসায় ফিরে ১৬ তলার কলিং বেল চাপলেও কেউ দরজা খুলছিল না। পরে ১৫ তলার কলিং বেল চাপলে বৃদ্ধা গৃহকর্মী দরজা খোলেন। তখন তিনি ১৬ তলায় গিয়ে দেখেন খাটের ওপর মাহফুজার নিথর দেহ পড়ে আছে। লাশ কম্বল দিয়ে ঢাকা ছিল। পাশেই পড়ে ছিল বালিশ।স্বজনরা জানান, গত মাসেই স্বপ্না ও রেশমা নামে দুইজন গৃহকর্মী এই বাসায় কাজে যোগ দেয়। স্বপ্নার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ইটনায় আর রেশমার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের বোয়ালমারি। এসএ/  
সড়কের বিপজ্জনক খুঁটি সরাতে হবে ৬০ দিনের মধ্যে

সারা দেশের সড়ক-মহাসড়কে বিপজ্জনক অবস্থায় থাকা সব ধরনের বৈদ্যুতিক খুঁটি ৬০ দিনের মধ্যে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।এর আগে বুধবার এ রিট আবেদনটি করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেসুর রহমান। রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানিতে এ আদেশ দেন হাইকোর্ট।আদেশে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়, সরকারের পূর্ত বিভাগসহ সংশ্লিষ্টদের খুঁটি সরানোর এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।রিটকারী আইনজীবী সায়েদুল হক সুমন জানান, গত শনিবার রাতে সিলেটে যাওয়ার পথে নরসিংদীর শিবপুরে রাস্তার মধ্যে একটি খুঁটি দেখে ফেসবুকে লাইভ করেন তিনি। সেই ভিডিও দেখে অনেকেই দেশের বিভিন্ন সড়কে থাকা বিপজ্জনক খুঁটির ছবি ফেসবুকে সুমনকে পাঠান। সেসব ছবি যুক্ত করেই হাইকোর্টে জনস্বার্থে এ রিট আবেদন করেন তিনি।এসএ/

সাফাতের জামিন বাতিল, কারাগারে প্রেরণ

বনানীর আলোচিত ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ছাত্রী ধর্ষণের মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের জামিন বাতিল করেছেন ট্রাইব্যুনাল। একই সঙ্গে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।আজ বুধবার ঢাকার ৭ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খাদেম উল কায়েসের আদালত এ আদেশ দেন।আদালতে সাফাত আহমেদের উপস্থিতিতে বিচারক তার জামিন আবেদন বাতিল করেন। এছাড়া কারাগারে থাকা একই মামলার আসামি সাফাতের বন্ধু নাঈম আশরাফের জামিন আবেদনও বাতিল করেছেন ট্রাইব্যুনাল।অপরদিকে, মামলার ভিক্টিমকে জেরা করার দিন ধার্য ছিল আজ বুধবার। আদালতে তাকে জেরা করে আসামিপক্ষের আইনজীবী। তবে তাকে জেরা করা শেষে না হওয়ায় আগামী ৬ মার্চ পরবর্তী জেরার জন্য নতুন করে দিন ধার্য করেন ট্রাইব্যুনাল।গত ২৯ নভেম্বর সাফাত আহমেদের জামিন মঞ্জুর করেন একই বিচারক। এর আগে বিভিন্ন সময় ধর্ষণের সহযোগী আসামি সাফাত আহমেদের দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন এবং বন্ধু সাদমান সাকিব হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন।উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে জন্মদিনের পার্টির কথা বলে ডেকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়। ওই ঘটনার প্রায় ৪০ দিন পর ৬ মে সন্ধ্যায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনকে আসামি করে বনানী থানায় ধর্ষণের মামলা করেন এক ভুক্তভোগী।৮ জুন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম দেলোয়ার হোসেনের আদালতে সাফাতসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের নারী সহায়তা ও তদন্ত বিভাগের পরিদর্শক ইসমত আরা এমি। অভিযোগপত্রে ৪৭ জনকে সাক্ষী করা হয়।পরে ১৩ জুলাই ঢাকার দুই নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শফিউল আজম আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। আসামি সাফাত ও নাঈমের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ৯ (১) ধারা এবং অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে ৯ (১) এর ৩০ ধারায় অভিযোগ গঠন করা হয়।এসএ/

গাড়ি পার্কিং ও ডাইভারশন সংক্রান্ত ডিএমপি’র নির্দেশনা

মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় সমাবেশ ঐতিহাসিক বিশ্ব ইজতেমা। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সম্মানিত অতিথিবৃন্দসহ দেশের অভ্যন্তরের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে লক্ষ লক্ষ ধর্মপ্রাণ মানুষ বিশ্ব ইজতেমা প্রান্তরে সমবেত হন। ধর্মীয় জমায়েত নির্বিঘ্ন করতে ইতোমধ্যে বিশ্ব ইজতেমা ০২ পর্বে সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এ বিপুল সংখ্যক ধর্মপ্রাণ মানুষের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ যানবাহন পার্কিং এর জন্য নিম্নোক্ত স্থানসমূহ নির্ধারণ করেছে।বিশ্ব ইজতেমার তারিখ :১ম পর্ব : আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি,২০১৯ তারিখ হতে ১৬ ফেব্রুয়ারি,২০১৯ তারিখ পর্যন্ত।২য় পর্ব : আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি,২০১৯ তারিখ হতে ১৮ ফেব্রুয়ারি,২০১৯ তারিখ পর্যন্ত।গাড়ি পার্কিং সংক্রান্ত তথ্যাদি :১। রেইনবো ক্রসিং হতে আব্দুল্লাহপুর হয়ে ধউর ব্রিজ পর্যন্ত এবং রামপুরা ব্রিজ হতে প্রগতি সরণী পর্যন্ত রাস্তা ও রাস্তার পার্শ্বে কোন যানবাহন পার্কিং করা যাবে না।২। ইজতেমায় আগত সম্মানিত মুসল্লীদের যানবাহনসমূহ নিম্নবর্ণিত স্থানসমূহে (বিভাগ অনুযায়ী) যথাযথভাবে পার্কিং করবেন :ক) চট্রগাম বিভাগ পার্কিং : গাউসুল আজম এভিনিউ (১৩ নং সেক্টর রোডের পূর্বপ্রান্ত হতে পশ্চিমপ্রান্ত হয়ে গরীবে নেওয়াজ রোড)।খ) ঢাকা বিভাগ পার্কিং : সোনারগাঁও জনপথ চৌরাস্তা হতে দিয়াবাড়ি খালপাড় পর্যন্ত।গ) সিলেট বিভাগ পার্কিং : উত্তরাস্থ ১৫ নং সেক্টর খালপাড় হতে দিয়াবাড়ি গোলচত্ত্বর পর্যন্ত।ঘ) খুলনা বিভাগ পার্কিং : উত্তরাস্থ ১৭ ও ১৮ নং সেক্টরের খালি জায়গা (প্রধান সড়কসহ)।ঙ) রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগ পার্কিং : প্রত্যাশা হাউজিং।চ) বরিশাল বিভাগ পার্কিং : ধউর ব্রিজ ক্রসিং সংলগ্ন বিআইডব্লিউটিএ ল্যান্ডিং স্টেশন।ছ) ঢাকা মহানগর পার্কিং : উত্তরাস্থ শাহজালাল এভিনিউ, নিকুঞ্জ-১ এবং নিকুঞ্জ-২ এর আশপাশের খালি জায়গা। ৩। নির্র্ধারিত পার্কিং স্থানে মুসল্লীবাহী যানবাহন পার্কিং এর সময় অবশ্যই গাড়ির চালক/হেলপার গাড়িতে অবস্থান করবেন এবং মালিক ও চালক একে অপরের মোবাইল নম্বর নিয়ে রাখবেন, যাতে বিশেষ প্রয়োজনে তাৎক্ষণিকভাবে পারস্পরিক যোগাযোগ করা যায়।ডাইভারশন সংক্রান্ত তথ্যাদি :৪। ডাইভারশন পয়েন্টসমূহ (শুধুমাত্র আখেরী মোনাজাতের দিন আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রি. ও ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রি. ভোর ০৪.০০ টা হতে ):⇒মহাখালী ক্রসিং⇒ হোটেল রেডিসন গ্যাপ⇒ প্রগতি সরণী⇒ কুড়িল ফ্লাইওভারের নিচে লুপ-২⇒ ধউর ব্রিজ⇒ বেড়িবাঁধ সংলগ্ন উত্তরা ১৮নং সেক্টরের প্রবেশ মুখ৫। ডাইভারশন চলাকালীন :♦ আশুলিয়া হতে আব্দুল্লাহপুরগামী যানবাহনসমূহ আব্দুল্লাহপুর না এসে ধউর ব্রিজ ক্রসিং দিয়ে ডানে মোড নিয়ে মিরপুর বেড়িবাঁধ দিয়ে চলাচল করবে।♦ মহাখালী বাস টার্মিনাল হতে আব্দুল্লাহপুরগামী আন্তঃজেলা বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসহ সকল প্রাকার যানবাহন মহাখালী ক্রসিং-এ বামে মোড় নিয়ে বিজয় সরণী-গাবতলী দিয়ে চলাচল করবে ।♦ কাকলী, মিরপুর হতে উত্তরাগামী বড় বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসমূহকে হোটেল রেডিসন গ্যাপে ডাইভারশন প্রদান করা হবে। উল্লিখিত যানবাহনসমূহকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের জন্য বলা হলো।♦ কাকলী, মিরপুর হতে উত্তরাগামী প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, সিএনজিসমূহকে নিকুঞ্জ-১ গেটের সামনে ডাইভারশন প্রদান করা হবে। উল্লিখিত যানবাহনসমূহকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের জন্য বলা হলো।♦ প্রগতি সরণী হতে আব্দুল্লাহপুরগামী যানবাহনসমূহ কুড়িল ফ্লাইওভারের নিচে লুপ-২ এ ডাইভারশন প্রদান করা হবে। উল্লিখিত যানবাহনসমূহকে বিকল্প সড়ক ব্যবহারের জন্য বলা হলো।♦ বিশ্ব ইজতেমা-২০১৯ এর আখেরী মোনাজাতের দিন অর্থাৎ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ তারিখ বিমান অপারেশনস ও বিমান ক্রু বহনকারী যানবাহন, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গাড়ি ও এ্যাম্বুলেন্স বিমান বন্দর সড়ক ব্যবহার করে চলাচল করতে পারবে।♦ বিশ্ব ইজতেমা-২০১৯ এর আখেরী মোনাজাতের দিন অর্থাৎ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ এবং ১৮ ফেব্রুয়ারি,২০১৯ তারিখ বিমানের অপারেশনস ও বিমান ক্রু বহনকারী যানবাহন, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গাড়ি ও এ্যাম্বুলেন্স ব্যতিত সকল প্রকার যানবাহনের চালকগণকে বিমানবন্দর সড়ক পরিহার করে বিকল্প হিসেবে মহাখালী, বিজয় সরণী হয়ে মিরপুর-গাবতলী সড়ক ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ করা হলো ।♦ বিশ্ব ইজতেমা-২০১৯ এর আখেরী মোনাজাতের দিন অর্থাৎ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ তারিখ ভোর ০৪.০০ টা হতে বিদেশগামী বা বিদেশ ফেরৎ যাত্রীদের নিকুঞ্জ-১ হতে বিমানবন্দরে আনা-নেয়ার জন্য ট্রাফিক উত্তর বিভাগের ব্যবস্থাপনায় ০২টি মিনিবাস ও ০২টি মাইক্রোবাস ফ্রি পরিবহন সেবার জন্য নিকুঞ্জ-১ আবাসিক এলাকার গেইটে মোতায়েন থাকবে।ট্রাফিক সম্পর্কিত যে কোন তথ্যের জন্য প্রয়োজনে সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার (উত্তরা ট্রাফিক জোন ০১৭১৩-৩৯৮৪৯৮) অথবা টিআই (উত্তরা ট্রাফিক জোন ০১৯১২-০২৫৯৩৯) নম্বরে যোগাযোগ করতে পারবেন।ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে যানবাহন চলাচলে শৃঙ্খলা রক্ষা ও যানজট এড়ানোর লক্ষ্যে সম্মানিত ধর্মপ্রাণ নাগরিকবৃন্দের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছে ।সূত্র : ডিএমপি নিউজএসএ/

আজ ডিএমপি’র ৪৪তম প্রতিষ্ঠা দিবস

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ৪৪তম প্রতিষ্ঠা দিবস আজ বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি)। এ উপলক্ষে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে বর্ণিল উদযাপনের আয়োজন করেছে পুলিশের গুরুত্বপূর্ণ এ সংস্থাটি।দিবসটি উপলক্ষে ডিএমপি সদর দফতর থেকে বিকেল ৩টায় রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত বর্ণাঢ্য র‌্যালি, প্রতিষ্ঠা দিবস উদ্বোধন, ডকুমেন্টারি প্রদর্শনসহ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন উপস্থিত থাকবেন।‘শান্তি শপথে বলীয়ান’ এ মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে বাংলাদেশ পুলিশের বৃহৎ ইউনিট ডিএমপি ১৯৭৬ সাল থেকে জননিরাপত্তা বিধান ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালন করে আসছে। মাত্র ১২টি থানা নিয়ে পথচলা শুরু করা ডিএমপি এখন ৫০টি থানার মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। সচিব পদমর্যাদার একজন অতিরিক্ত আইজি কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।তার অধীনে কাজ করছেন ৫ জন অতিরিক্ত কমিশনার (ডিআইজি), ১০ জন যুগ্ম কমিশনার (অতিরিক্ত ডিআইজি), ৪৪ জন উপ-পুলিশ কমিশনার (এসপি), ৮৬ জন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অতিরিক্ত এসপি), ১৯২ জন সহকারী পুলিশ কমিশনার (এএসপি), ৬৪৩ জন পরিদর্শক, ২ হাজার ৯৮৬ জন উপ পরিদর্শক (এসআই), ৪ হাজার ৬১ জন সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই), ১ হাজার ৩৪৫ জন নায়েক ও ২০ হাজার ৫৩০ জন কনস্টবল। ৩০ হাজার ৫৪৫ জন অফিসার ও ফোর্সের সমন্বয়ে গঠিত সংস্থাটির কমিশনার হিসেবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।এসএ/

খুনের মামলায় কারাগারে দুলু

নাটোরে জোড়া খুনের মামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।আজ মঙ্গলবার দুপুরে কড়া নিরাপত্তায় বিএনপি নেতা দুলুকে নাটোরের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম মামুনুর রশিদের আদালতে হাজির করা হয়। পরে নাটোর শহরের তেবাড়িয়া এলাকার একটি জোড়া খুনের মামলায় গ্রেপ্তারের আবেদন জানায় পুলিশ।এ সময় দুলুর আইনজীবীরা তার জামিনের আবেদন জানান। শুনানি শেষে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে দুলুকে গ্রেপ্তারের আদেশ দিয়ে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি গণতন্ত্রের বিজয় শোভাযাত্রার সময় নাটোর শহরের তেবাড়িয়া এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ওই এলাকার রাকিব ও রায়হান নামের দুই যুবক নিহত হন।ওই ঘটনায় নিহত রাকিবের ভাই আনজুল বাদী হয়ে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন। গত বছরের ১২ ডিসেম্বর বিএনপি নেতা দুলুকে ঢাকা থেকে আটক করেছিল পুলিশ।এসএ/

তরুণী ধর্ষণের অভিযোগ: এআই-এএসআই ৬ দিনের রিমান্ডে

এক তরুণী ধর্ষণের অভিযোগে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন এবং এএসআই মাজহারুল ইসলামকে ছয় দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মহিউদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে মানিকগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের সাত নম্বর আদালতে তাদের হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ গোলাম সারোয়ার তাদের ছয় দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী গতকাল সোমবার রাতে সাটুরিয়া থানায় অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। তার আগে দু’জনের বিরুদ্ধে জেলা পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন তিনি। তখন দুই কর্মকর্তাকেই থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। পরে আজ মঙ্গলবার সকালে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গেলো বুধবার থানার পাশের সরকারী ডাকবাংলোতে নিয়ে অস্ত্রের মুখে ইয়াবা সেবন করিয়ে তরুণী ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী। একে//

আজ নাইকো মামলার চার্জ শুনানি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ অন্যান্য আসামিদের বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলার চার্জ শুনানি অনুষ্ঠিত হবে আজ মঙ্গলবার। এজন্য কারাগার থেকে খালেদা জিয়াকে অস্থায়ী বিশেষ আদালতে হাজির করা হতে পারে। আদালত সূত্রে এমনটি জানা গিয়েছে।পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত বিশেষ জজ শেখ হাফিজুর রহমানের আদালতে মামলাটি বিচারাধীন।গত ৪ ফেব্রুয়ারি চার্জ শুনানিতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এ মামলার যাবতীয় সিডি ও অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের কপি চেয়ে আবেদন করেন। ওইদিন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ তার নিজের পক্ষে শুনানি করেন। ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের চার্জ শুনানি শেষ না হওয়ায় পরবর্তী শুনানির জন্য মঙ্গলবার দিন ঠিক করেছিলেন আদালত।এর আগে, চলতি বছরের ৩, ১৩ ও ২১ জানুয়ারি এবং ৪ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছিল। এর মধ্যে ৩ জানুয়ারির শুনানিতে উপস্থিত হয়ে আদালতে বসার জায়গা নিয়ে তিনি অসন্তোষ জানিয়েছিলেন আদালতকে। তবে এর পরের শুনানিগুলোতে উপস্থিত থাকলেও কিছু বলেননি তিনি।নাইকো দুর্নীতি মামলার প্রধান আসামিরা হলেন— বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সচিব খন্দকার শহীদুল ইসলাম, ঢাকা ক্লাবের সাবেক সভাপতি সেলিম ভূঁইয়া, ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন আল মামুন এবং জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সহকারী সচিব সি এম ইউছুফ হোসাইন।এই মামলায় তিন জন আসামি পলাতক। তারা হলেন— সাবেক মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, বাপেক্সের সাবেক মহাব্যবস্থাপক মীর ময়নুল হক ও নাইকোর দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট কাশেম শরীফ।গত বছরের ৫ মে এই মামলায় অভিযুক্ত আরেক আসামি সাবেক সচিব শফিউর রহমান মারা যাওয়ায় তার নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল আদালতে খালেদা জিয়াসহ মামলার ১১ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের আবেদন জানান।কানাডার কোম্পানি নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতিসাধন ও দুর্নীতির অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে দুদকের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করেন। পরের বছর ৫ মে ওই মামলায় খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) জমা দেন দুদকের সহকারী পরিচালক এস এম সাহেদুর রহমান। অভিযোগপত্রে প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।নাইকো ছাড়াও গ্যাটকো এবং বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তা বাতিলের আবেদন জানিয়ে আলাদা রিট করেছিলেন খালেদা জিয়া। এসব রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুর্নীতি মামলাগুলোর কার্যক্রম স্থগিত করে রুল জারি করেন হাইকোর্ট বিভাগ।কয়েক বছর স্থগিত থাকার পর মামলাগুলো সচলের উদ্যোগ নিয়ে রুল নিষ্পত্তির আবেদন জানায় দুদক। পরে গত বছর আলাদা আলাদা শুনানি শেষে মামলা তিনটি সচলের রায় দেন আদালত।এসএ/  

মানবাধিকার লঙ্ঘনকারিদের আইনের আওতায় আনা হবে: আইনমন্ত্রী  

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বাংলাদেশে যারা মানবাধিকার লঙ্ঘন করবে তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে।   তিনি বলেন, মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদের ব্যাপারে সরকারের অবস্থান পরিষ্কার। যারা মানবাধিকার লঙ্ঘন করবে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। বাংলাদেশে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের অন্যতম লক্ষ্য। আইনমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে জাতিসংঘের পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।   বৈঠকে জাতিসংঘের সিনিয়র মানবাধিকার বিষয়ক উপদেষ্টা হেইকা আলেফসেন ও সোকো ইসাইকাওয়াসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। আইনমন্ত্রী বলেন, ‘মানবাধিকার নিয়ে আমরা আমাদের অভিমত ও কমিটমেন্ট ব্যক্ত করেছি। আমি বলেছি, শেখ হাসিনার সরকার বিশ্বাস করে বাংলাদেশে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা সরকারের অন্যতম লক্ষ্য এবং এটা সরকার সব সময় করে যাচ্ছে। যার কারণে আজকে মানবাধিকার পরিস্থিতি অনেক উন্নত।’ জাহালমের তিন বছর জেল খাটায় ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) শিগগিরই ‘সিরিয়াস’ পদক্ষেপ নেবে এমন আশা প্রকাশ করে আনিসুল হক বলেন, ‘জাহালমের ব্যাপারে যেটা হয়েছে, তা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি এটার তীব্র নিন্দা জানাই। আমি মনে করি যে, দুর্নীতি দমন কমিশন এ রকম একটা ঘটনার ব্যাপারে অবহিত হয়েছে, তারা এ ব্যাপারে দ্রুত সিরিয়াস পদক্ষেপ নেবে।’ প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে আইনমন্ত্রী জানান, জাতিসংঘের যতগুলো সংস্থা রয়েছে সেগুলো এক প্লাটফর্মে থেকে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে চায়। তিনি বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়েও জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। আমি পরিষ্কারভাবে সরকারের অবস্থান ব্যক্ত করেছি।   এসি     

গ্যাটকো মামলায় খালেদার হাজিরা আজ

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে আজ কারাগার থেকে বকশিবাজারের আলিয়া মাদ্রাসার অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতে নেওয়া হতে পারে।মামলাটি পুরান ঢাকার বকশিবাজারের বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলজারের আদালতে বিচারধীন রয়েছে। আদালত সংশ্লিষ্ট বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা এ তথ্য জানান।এর আগে গত ২৪ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছিলো। ওইদিন খালেদা জিয়া আদালতে বসা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন।গত মাসের ১০ তারিখে খালেদা জিয়াকে ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বিশেষ আদালতে হাজির করার জন্য প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট জারি করেছিলেন একই আদালত।জরুরি বিধিমালা সংযুক্ত এ মামলার অভিযোগপত্রের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে মামলা বাতিল চেয়ে রিট করেছিলেন খালেদা জিয়া। রিটের কারণে প্রায় ৮ বছর নিম্ন আদালতে বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল। রিট খারিজ করে উচ্চ আদালত ২০১৬ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে দুই মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশে ওই বছরের ৫ এপ্রিল আত্মসমর্পণ করে জামিন পান খালেদা জিয়া।২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুদকের উপপরিচালক মো. গোলাম শাহরিয়ার ১৩ জনের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করেন।২০০৮ সালের ১৩ মে মামলাটি তদন্ত করে জোট সরকারের প্রভাবশালী ৯ জন সাবেক মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীসহ মোট ২৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের উপপরিচালক মো. জহিরুল হুদা অভিযোগপত্র দাখিল করেন।২৪ আসামির মধ্যে সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভুইয়া, সাবেক মন্ত্রী ও জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রাহমান কোকো, এমকে আনোয়ার, সাবেক মন্ত্রী এম শামছুল ইসলাম, বন্দরের প্রধান অর্থ ও হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা আহমেদ আবুল কাশেম এর মৃত্যুর পর এই মামলায় বর্তমান আসামির সংখ্যা ১৭ জন।অন্য আসামিদের মধ্যে রয়েছেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, সাবেক মন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেনের (প্রয়াত) স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং একেএম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক সদস্য একে রশিদ উদ্দিন আহমেদ এবং গ্লোবাল এগ্রোট্রেড প্রাইভেট লি. (গ্যাটকো) এর পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী একেএম মোশাররফ হোসেন।এসএ/  

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি