ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪

ওয়ার্ল্ড ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালে রাশিয়া যাচ্ছেন ৯৫ বাংলাদেশি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:৪২, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | আপডেট: ১৬:৪৪, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে মানবিক সম্পর্ক বৃদ্ধির ধারাবাহিকতায় ওয়ার্ল্ড ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালে ৯৫ জন তরুণ সুযোগ পাচ্ছেন। এর মধ্যে ৫৩ জনের সব খরচ বহন করবে রাশিয়া। বাকিদের ফ্লাইটের টিকিটের খরচ নিজেদের। ৩২ জন যুব প্রতিনিধি রিজিওনাল প্রোগ্রামে সুযোগ পাবেন। 

এবার ১৮৮টি দেশের ৩ লাখ ৯ হাজার ৫৪২টি আবেদন জমা পড়েছিল উৎসবে অংশ নিতে। অংশ নেবেন ১০ হাজার বিদেশি, ১০ হাজার রাশিয়ান। কর্মদক্ষতা, এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিস, সাংস্কৃতিক অন্তর্ভুক্তি, সামাজিক কার্যক্রম, শিক্ষা, প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে ক্যাটাগরি নির্ধারণ করা হয়।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান বিশ্ব যুব উৎসব রাশিয়ার জাতীয় প্রস্তুতি কমিটির সাধারণ সম্পাদক জিয়া উদ্দিন হায়দার।  

তিনি আশা করেন, উৎসব থেকে ফিরে অর্জিত শিক্ষায় অংশগ্রহণকারীরা দেশের উন্নয়নে কাজ করতে পারবেন। উৎসবে রাশিয়ান সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের প্রদর্শনী, বিভিন্ন অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী খাবার, পোশাক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রদর্শনী তুলে ধরা হবে। থাকবে খেলাধুলা, কর্মশালা, আলোচনা ইত্যাদি। সেখানে বাংলাদেশের স্টলে থাকবে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, পর্যটন, লোক ও হস্তশিল্প, মৃৎশিল্প, ঐতিহ্যবাহী পোশাক, পাটের থলে, মুদ্রা, মিষ্টি, খাবার। একদিন অংশগ্রহণকারী পরবেন শাড়ি ও পাঞ্জাবি। তাদের হুডি পোশাকে স্মৃতিসৌধ ও রিকশাচিত্র থাকবে।

বিশ্ব যুব উৎসব রাশিয়ার জাতীয় প্রস্তুতি কমিটির চেয়ারম্যান তারেক মাহমুদ বলেন, ২০১৭ সালে এ প্রোগ্রাম হয়েছিল। এবার ২৭-২৯ ফেব্রুয়ারি ফ্লাইটে অংশগ্রহণকারী ৯৫ জন যাবেন রাশিয়ায়। এর মধ্যে ১০ জন চট্টগ্রামের। এ ছাড়া ১০ জন সাংবাদিক যাচ্ছেন নির্বাচন কাভার করতে। এটি আমাদের জন্য গৌরবের।

রাশিয়ার অনারারি কনসাল স্থপতি আশিক ইমরান বলেন, রাশিয়ায় মেধাবী শিক্ষার্থী, বিশেষজ্ঞদের নেওয়া হয় উৎসবে। এখানে অর্জিত দক্ষতা দিয়ে দেশের উন্নয়নের জন্য কাজ করতে পারবেন। রাশিয়া বাংলাদেশের স্বাধীনতাকাল থেকে আন্তরিক বন্ধু। আশাকরি যারা এ উৎসবে যাবেন তারা দেশের দূত হিসেবে কাজ করবেন।  

তিনি বলেন, রাশিয়া সরকার বিভিন্ন খাতে ১৪২টি বৃত্তি দিচ্ছে। আগামীতে আরও বাড়ানোর প্রচেষ্টা আছে।  

প্রস্তুতি কমিটির সাধারণ সম্পাদক জিয়া উদ্দিন হায়দার বলেন,  ‘বিশ্ব যুব উৎসবে বিশ্বের ২০ হাজার যুবনেতা অংশগ্রহণ করবেন। বাংলাদেশ থেকে অংশ নেবেন ৯৫ জন। এই আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্বের ১৮০টি দেশের সামনে বাংলাদেশ তার ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি তুলে ধরতে পারবে। বাংলাদেশের তরুণ-তরুণীরা এই উৎসবে সর্বোচ্চ দিয়ে অংশগ্রহণ করবেন এবং বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি করবেন।’

বিশ্ব যুব উৎসব ২০২৪-এর জন্য ৩০০ জন গাইডের প্রশিক্ষণ সিরিয়াসে (সোচি) শুরু হয়েছে। এই গাইডরা ১৮০টি দেশের ১০ হাজার বিদেশি এবং ১০ হাজার রাশিয়ান অংশগ্রহণকারীকে উৎসবে স্বাগত জানাবেন। তারা ১০টি থিমেটিক রুটের মাধ্যমে রাশিয়ার সম্ভাবনা, সাফল্য ও সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্য তুলে ধরবেন বিশ্ব যুব উৎসবে অংশ নেওয়া তরুণদের কাছে। 

কেআই//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি