ঢাকা, সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ১৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ঔপন্যাসিক প্যারীচাঁদ মিত্রের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:১৬ ২৩ নভেম্বর ২০১৯

বাংলা সাহিত্যের প্রথম ঔপন্যাসিক প্যারীচাঁদ মিত্রের মৃত্যুবার্ষিকী আজ ২৩ নভেম্বর। ১৮৮৩ সালের আজকের এই দিনে তিনি মারা যান। তার ছদ্মনাম ছিল টেকচাঁদ ঠাকুর।

ভারতের কলকাতায় ১৮১৪ সালের ২২ জুলাই এক বণিক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এই ঔপন্যাসিক। তিনি বহুমুখি প্রতিভার অধিকারী ছিলেন।

শৈশবে একজন গুরুমহাশয়ের নিকট বাংলা, পরে একজন মুন্সির নিকট ফারসি শিখেন। ইংরেজি লাভের জন্য হিন্দু কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হয়েছিলেন। ঐ সময় ডিরোজিও নামে একজন বিখ্যাত অধ্যাপক ছিলেন হিন্দু কলেজে। তিনি তার শিষ্য ও ভাবশিষ্য ছিলেন।

তিনি বাংলার নবজাগরণের অন্যতম নেতা ছিলেন। ক্যালকাটা পাবলিক লাইব্রেরির লাইব্রেরিয়ান ছিলেন তিনি। ফার্সি, বাংলা ও ইংরেজি ভালো জানতেন। বিশেষ করে বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় বহু গ্রন্থ রচনা করে তিনি খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তার ইংরেজি ভাষায় রচিত লেখাসমূহ ছাপা হত ইংলিশম্যান, ইন্ডিয়ান ফিল্ড, ক্যালকাটা রিভিউ, হিন্দু প্যাট্রিয়ট, ফ্রেন্ড অফ ইন্ডিয়া প্রভৃতি পত্রিকায়। তিনি পুলিশি অত্যাচারিতার বিরুদ্ধে লড়েছিলেন এবং সফলকামও হয়েছিলেন। তিনি স্ত্রী শিক্ষা প্রচারে যথেষ্ট সক্রিয়তার পরিচয় দেন। তিনি বিধবাবিবাহ সমর্থন করতেন। তিনি বাল্যবিবাহ এবং বহুবিবাহের বিরোধিতা করেন।

প্যারীচাঁদ মিত্র নারীদের জন্য একটি মাসিক পত্রিকা সম্পাদনা করতেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের সদস্য ও পশু-ক্লেশ নিবারণী সভারও সদস্য ছিলেন তিনি। এছাড়াও বেথুন সোসাইটি ও ব্রিটিশ ইন্ডিয়া সোসাইটির অন্যতম উদ্যোক্তা ছিলেন প্যারীচাঁদ মিত্র।

আলালের ঘরের দুলাল প্যারীচাঁদ মিত্রের রচিত শ্রেষ্ঠ ও বাংলা সাহিত্যের প্রথম উপন্যাস।
এসএ/

 

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি