ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ মে ২০২১, || বৈশাখ ২৯ ১৪২৮

করোনার লক্ষণগুলো কতটা মারাত্মক?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:২৩, ৮ জুলাই ২০২০

বৈশ্বিক করোনাভাইরাস নিয়ে চলছে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা। চলছে আক্রান্তদের নিয়ে পরিসংখ্যান। এ রকম একটি পরিসংখ্যানে বিশেষজ্ঞরা দেখতে পান জ্বর দিয়ে শুরু হয় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। এরপরে শুকনো কাশি দেখা দিতে পারে। প্রায় এক সপ্তাহ পরে শুরু হয়ে যায় শ্বাসকষ্ট। এ অবস্থায় অনেক রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা নিতে হয়।

করোনা আক্রান্তদের উপর চালানো এক পরিসংখ্যান নিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, এখন পর্যন্ত মহামারি করোনাভাইরাসে মারা যাওয়ার হার কম ১ থেকে ২ শতাংশের মধ্যে। তবে এই পরিসংখ্যান নিয়ে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে মতবিরোধ রয়েছে। ইউরোপের কোন কোন অঞ্চলে এখনও অধিক মৃত্যুহার দেখা যাচ্ছে। 

এ পর্যন্ত মহামারি করোনা মানুষের দেহে কতোটা প্রভাব বিস্তার করেছে তার একটি পরিসংখ্যান চালানো হয়। তাতে দেখায় যায়, ৮০ শতাংশের মধ্যে ভাইরাসের হালকা উপসর্গ। আর কঠিন অসুস্থ হয় মাত্র ৬ শতাংশ মানুষ।

সম্প্রতি ৫৬ হাজার আক্রান্ত রোগীর উপর চালানো এক জরিপ নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে কঠিনভাবে অসুস্থ হয় মাত্র ৬% মানুষ। তাদের ফুসফুস বিকল হওয়া, সেপটিক শক, অঙ্গ বৈকল্য এবং মৃত্যুর সম্ভাবনা তৈরি হয়।

এই পরিসংখ্যানে দেখা যায়, কোভিড-১৯’র তীব্র উপসর্গে ভুগেছেন ১৪%। তাদের মূলত শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা তৈরি হয়। যার কারণে এদেরকে হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে।

তবে বিশ্বব্যাপী হালকা উপসর্গের রোগীই বেশি। ৮০% এর মধ্যে দেখা যায় হালকা উপসর্গ। এদের জ্বর এবং কাশি ছাড়াও কারো কারো নিউমোনিয়ার উপসর্গ দেখা যেতে পারে।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, বয়স্ক ব্যক্তি এবং যাদের কোনো ধরনের অসুস্থতা রয়েছে যেমন- অ্যাজমা, ডায়বেটিস, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ। করোনায় তাদের মারাত্মক অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এই রোগে নারীদের চেয়ে পুরুষের মৃত্যুর সম্ভাবনা সামান্য বেশি।

পরিসংখ্যানে উঠে আসে চিকিৎসার বিষয়টিও। যেহেতু এখন পর্যন্ত করোনা প্রতিরোধে কোন ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। তাই আক্রান্ত ব্যক্তি যেন শ্বাস-প্রশ্বাসে সহায়তা পায় এবং তার দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা যেন ভাইরাসের মোকাবেলা করতে পারে তা নিশ্চিত করা থাকে চিকিৎসকদের প্রধান উদ্দেশ্য।

এএইচ/এমবি


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি