ঢাকা, রবিবার   ১২ জুলাই ২০২০, || আষাঢ় ২৮ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

করোনা মহামারী রূপ নিয়েছে ইউরোপ জুড়ে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫৩ ১৬ মার্চ ২০২০

করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে রূপ নিয়েছে ইউরোপ মহাদেশে। এই মুহূর্তে চীনের পরিবর্তে ইউরোপ করোনা মহামারীর কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হুঁশিয়ারি দিয়েছে। মহাদেশটিতে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে মৃত্যু সংখ্যা ইতোমধ্যে ২৩০০ ছাড়িয়েছে।

সবথেকে খারাপ অবস্থা ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স এবং জার্মানে। চীনের পরে এখন পর্যন্ত ইতালিতে সর্বাধিক করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সেখানে মোট প্রাণ হারিয়েছেন ১,৮০৯ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩৬৮ জনের। আর দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩,৫৯০ জন। ফলে সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়ে ২৪,৭৪৭ জন।

ইতিমধ্যে দেশটির প্রধানমন্ত্রী গিসেপে কন্তের নির্দেশে ছয় কোটিরও বেশি মানুষকে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে দেড় লাখ বাংলাদেশিও রয়েছে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যগুলো জানিয়েছে। পুরো দেশজুড়েই ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা ও জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। 

এর আগে দেশটির ১৪টি প্রদেশে ৮ মার্চ থেকে আগামী ৩ এপ্রিল পর্যন্ত জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। কিন্তু এখন তা বাড়িয়ে দেশটির ২০টি প্রদেশের সবগুলোতেই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে।

স্পেনে আরও ৯৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯২। আর নতুন করে ১,৪৫২ জন আক্রান্ত হওয়ার পরে মোট সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭,৮৪৩। 

দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মি. স্যানচেজ দেশটির অধিবাসীদের অতি জরুরি কাজ ছাড়া ঘরের বাইরে বের হতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন। এই জরুরি অবস্থা দুই সপ্তাহ জারি থাকবে। তবে প্রয়োজন হলে এবং পার্লামেন্ট অনুমোদন করলে বাড়বে এর মেয়াদ।

ফ্রান্স গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৬ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৭-এ। গত একদিনে ফ্রান্সে ভাইরাটিতে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১ হাজার মানুষ। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ৫ হাজার ৪৩৭ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে করোনায়।

দেশটিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী এদুয়ার্দ ফিলিপ্পে। নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকছে রেস্তোরাঁ, ক্যাফে, সিনেমা হল এবং নাইট ক্লাব। কম জরুরি সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও রয়েছে বন্ধের আওতায়। যে কোন সমাগম এবং অনুষ্ঠানসমূহ বাতিল করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্কুল বন্ধ থাকবে।

ইউরোপের আরেক দেশ জার্মানিতে আজ পর্যন্ত  ৫ হাজার ৮২৩ জন আক্রান্ত হয়েছে করোনা ভাইরাসে। দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। 

ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫। আজ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১৪শ’ জন। সুইজারল্যান্ডে করোনা ভাইরাসে ২২০০ জন আক্রান্ত নিশ্চিত হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এই ভাইরাসের সংক্রমণ এখনই নিয়ন্ত্রণ না করা গেলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারে বলে ইতোমধ্যে সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এএইচ/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি