ঢাকা, শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ১২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

কেরানীগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:৫২ ১২ ডিসেম্বর ২০১৯

রাজধানীর কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া এলাকায় অবস্থিত ‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১ জনে দাঁড়িয়েছে। 

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. তাহমিনা সাত্তার শিমু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

সর্বশেষ আজ বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জাহাঙ্গীর (৫৫) নামের একজন মারা যান। 

নিহতরা হলেন- ইমরান, বাবুল, রায়হান, খালেক, সালাউদ্দিন, সুজন, জিনারুল ইসলাম ও আলম। বাকি একজনের পরিচয় জানা যায়নি।

ঢামেক বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন (আরএস) ডা. আরিফুল ইসলাম নবীন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বুধবার রাত থেকে আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল পর্যন্ত অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

বুধবার বিকালে অগ্নিকাণ্ডের সময়ই কারখানা থেকে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৩১ জনকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে ১০ জন মারা যান। দগ্ধদের বেশিরভাগের অবস্থাই গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ঢামেকের পুরনো বার্ন ইউনিট থেকে ইতোমধ্যে ১১ জনকে নতুন শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে কেরানীগঞ্জের ওই প্লাস্টিক কারখানায় আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

এই অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের চিকিৎসার জন্য ১২ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের অধ্যাপক ডা. বিধান সরকারকে বোর্ডের প্রধান করা হয়েছে।

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি