ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১:৫৬:২৪

Ekushey Television Ltd.

খালেদা জিয়ার  জামিনের মেয়াদ বাড়ল এক সপ্তাহ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০২:৫৯ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৩:০৪ পিএম, ১২ জুলাই ২০১৮ বৃহস্পতিবার

(ফাইল ফটো)

(ফাইল ফটো)

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে ১৯ জুলাই করা হয়েছে। এর আগে হাইকোর্ট বিএনপি চেয়ারপারসনকে চার মাসের জামিন দিয়েছিল, যা আজ বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এদিন সাজার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদার করা আপিলের ওপর প্রথম দিনের মতো শুনানি গ্রহণ করেন আদালত। আগামী রোববার বেলা ২টায় পরবর্তী শুনানির ক্ষণ ধার্য করা হয়েছে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের আইনজীবী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়াতে আদালতে আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। আর এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার আদালত ১৯ জুলাই পর্যন্ত জামিনের মেয়াদ বাড়ান।

বৃহস্প্রতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আদালতের কার্যক্রম শুরু হলে খালেদা জিয়ার আইনজীবী এ জে মো. আলী পেপারবুকে (মামলার বৃত্তান্ত) গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাদি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নেই উল্লেখ করে ওই সব তথ্য সরবরাহের জন্য একটি আবেদন দাখিল করেন। এ অবস্থায় আদালত বলেন, ‘রোববার আবেদনটি তালিকায় আসবে। আমরা শুনব।’

বেলা ১১টার দিকে আপিলের শুনানি শুরু হয়। খালেদার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ জে মো. আলী ও আবদুর রেজাক খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর দুদকের পক্ষে খুরশীদ আলম খান।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ মে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া চার মাসের জামিন বহাল রাখেন। রায়ে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে পাঁচ বছরের দণ্ডের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে করা খালেদা জিয়ার আপিল নিষ্পত্তি করতে বলা হয়। খালেদাকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বাতিলে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের করা আপিল খারিজ করে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ জজ আদালত। রায় ঘোষণার পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরোনো কারাগারে নেওয়া হয় বিএনপি চেয়ারপারসনকে। এ মামলায় জামিন পেলেও নিম্ন আদালতে একাধিক মামলা গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি থাকায় মুক্তি পাচ্ছেন না তিনি। বর্তমানে কারাগারেই বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া।

একে//



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি