ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:৪৯:১২

Ekushey Television Ltd.

‘গ্রাহকের প্রয়োজন অনুযায়ী গতির ইন্টারনেট দেবে সরকার’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৩:৩৪ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৮ শুক্রবার

একজন ইন্টারনেট গ্রাহকের প্রয়োজন অনুযায়ী গতির ইন্টারনেট সংযোগ দেবে সরকার। আর এ লক্ষ্যে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগ এবং তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়। শুক্রবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁও এর আইসিটি টাওয়ারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন নব নিযুক্তমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

আওয়ামী লীগ সরকারের বর্তমান মেয়াদের আজ চার বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে দেশের ডাক, টেলিযোগ এবং তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন এবং ভবিষ্যত পরিকল্পনা তুলে ধরার জন্য এক বিশেষ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে মন্ত্রণালয়ের আসিটি ডিভিশন।

“প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের এগিয়ে যাওয়ার আরও চার বছর” শীর্ষক এ সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার আরও বলেন, “সারাদেশে মানুষ এক দামে ইন্টারনেট পায় না। অথচ হওয়া উচিত সবাই একই দামে ইন্টারনেট পাবে। আমরা প্রতিটি বাসাবাড়িতে ১ এমবিপিএস গতির ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দিতে চেষ্টা করছি। আর এটা সম্ভব হলে ২০৪১ সাল নাগাদ সবার ঘরে ঘরে ১ জিবিপিএস গতির ইন্টারনেট পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে”।

এছাড়া নিজের বিভাগের উন্নয়ন, ডটবিডি ও ডটবাংলা ডোমেইন নিবন্ধন সহজ করা, টেলিটকের কলরেট কমানো, বিটিসিএলকে লাভজনকে পরিণত করার বিষয়ে বিভিন্ন উদ্যোগের কথা জানান তিনি। এছাড়াও নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্যও তিনি কাজ করবেন বলে জানান।

২০৪১ সালের মধ্যে এ দেশ কৃষিভিত্তিক সমাজ থেকে জ্ঞানভিত্তিক সমাজে উন্নীত হবে বলেও মন্তব্য করেন এই প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ।

সংবাদ সম্মেলনের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, “দেশের ইউনিয়ন পর্যায়ে হাইস্পিড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে জনগণকে ফ্রি ওয়াইফাই সেবা দিবে সরকার”। ‘ইনফো সরকার-৩’ প্রকল্পের আওতায় এ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করে প্রতিমন্ত্রী জানান, “লার্নিং আর্নিং প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ নেওয়া তরুণেরা এখন পর্যন্ত ছয় মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে। ২০১৮ সালে আরও নতুন ৪০ হাজার তরুণকে এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে”।

এছাড়াও দেশে প্রথমবারের মত জরুরি হেল্পডেক্স ৯৯৯ আইসিটি ডিভিশনের উদ্যোগে চালু হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

অনুষ্ঠানে আরও ছিলেন আইসিটি বিভাগের সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরী, বিভাগের কর্মকর্তারা ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং সংগঠনের নেতারা।

এসএইচএস/এসএইচ



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি