ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯, || আশ্বিন ৩০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

চাঁদের বুকে মানুষের পায়ের স্পর্শের ৫০ বছর আজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৪৭ ২০ জুলাই ২০১৯

আজ ২০ জুলাই। চাঁদের বুকে মানুষের পায়ের স্পর্শের ৫০ বছর পূর্ণ হলো। ১৯৬৯ সালে ‘স্যাটার্ন ৫’ রকেটে চেপে চাঁদে পাড়ি দিয়েছিল ‘অ্যাপোলো ১১’। যদিও তার পর থেকে একাধিক বার সফল চন্দ্র অভিযান হয়েছে, তবু অ্যাপোলো ১১-র জয়টা ছিল অন্যরকম।

১৬ জুলাই ১৯৬৯। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় ভোর ৬টা ৪৫ মিনিটে তিন জন তাঁদের নাশতা সারেন। এরপর নভোচারীর পোশাক পরেন। পেছনে ফিরে সবার উদ্দেশে হাত নেড়ে ধীরে ধীরে রকেটের ভেতর অদৃশ্য হয়ে যান। গোটা দুনিয়ার মানুষ টেলিভিশনে এই দৃশ্য সরাসরি দেখে। সকাল ৯টা ৩২ মিনিটে ৭৬ লাখ পাউন্ড জ্বালানি ভরা নাসার ‘স্যাটার্ন ৫’ রকেটের ইঞ্জিনের অংশ প্রজ্বলিত হয়। এরপর উড়াল দেয় মহাকাশের দিকে। চাঁদের মাটিতে পৌঁছাতে তাঁদের সময় লেগেছিল ৪ দিন। ২০ জুলাই চাঁদের কক্ষপথে প্রদক্ষিণের পর এই উপগ্রহের মাটিতে নামেন তিন মহাকাশচারী। আজ সেই দিন।

প্রথম পা রাখেন মার্কিন মহাকাশচারী নীল আর্মস্ট্রং। তাঁর পরে এডুইন অলড্রিন। সবশেষে নামেন পাইলট মাইকেল কলিন্স। ফেরার সময় একটি ব্যাগে নমুনা হিসেবে সাড়ে ২১ কিলোগ্রাম চাঁদের মাটি এবং পাথর ভরে ফিরে এসেছিলেন তাঁরা।

পরে জানা গিয়েছিল, সেই ব্যাগটি হারিয়ে ফেলেছিল নাসা। তবে ২০১৩ সালে সেটির খোঁজ মেলে। যে রকেটে চেপে উড়েছিল অ্যাপোলো ১১, তার উচ্চতা ছিল ৩৬৪ ফুট। ওজন ছিল ২ লাখ ৩৯ হাজার ৭২৫ কিলোগ্রাম। আর অ্যাপোলো ১১-র ওজন ছিল ৪৫ হাজার ৭০২ কিলোগ্রাম। পৃথিবী থেকে উেক্ষপণ এবং ফের পৃথিবীতে অবতরণ, এই মিশনটা সম্পূর্ণ হতে মোট সময় লেগেছিল আট দিন তিন ঘণ্টা এবং ১৮ মিনিট।

তবে এই অভিযান বিতর্কমুক্ত থাকেনি। অনেক মহল থেকে এই অভিযান ও চাঁদে পা রাখার বিষয়টাতে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। তবে ওই চন্দ্রাভিযান নিয়ে যত বিতর্কই থাকুক না কেন, এ বছর সারা বিশ্বই সফল ঐ অভিযানের ৫০ বছর পূর্তি উদ্যাপন করা হচ্ছে।

সূত্র : স্পেসডটকম, সিএনএন ও বিবিসি

এসএ/

 

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি