ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

রাতে চানাচুর বিক্রি, দিনে ক্রিকেট

জাতীয় দলে খেলতে চায় মোর্শেদ

সোহাগ আশরাফ :

প্রকাশিত : ১৪:৪৬ ১১ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট: ১৫:৩৯ ১২ নভেম্বর ২০১৮

বাবা বিক্রি করেন বাদাম। আর ছেলে চানাচুন। স্বপ্ন আকাশ ছোয়া। খেলতে চান জাতীয় ক্রিকেট দলে। সেই স্বপ্ন বাস্তবে রুপ দিতে খেলে যাচ্ছেন কুমিল্লা জেলার লাকসাম পৌরসভাধীন বাতাখালী গ্রামের আলী আকবরের ছেলে মোর্শেদ। পরিবারে চার ভাইয়ের মধ্যে মোর্শেদ তৃতীয়। অভাব আর আর্থিক দৈন্যতার কারণে প্রাথমিক স্কুলের গণ্ডিটাও টপকাতে পারেনি। কিন্তু শত অভাব আর কষ্টের মধ্যেও ছেলেটির মনের মধ্যে একটি স্বপ্ন দানা বেধে আছে। সেই ছোট বেলা থেকেই ব্যাট আর বলের সঙ্গে গভীর সম্পর্ক তার। বাবার সঙ্গে বাদাম বিক্রি করার পাশাপাশি পাড়ার ছেলেদের সঙ্গে লুকিয়ে খেলতেন ক্রিকেট। সেজন্য পরিবারের বকুনি ও তিরস্কার শুনতে হয়নি কম। 

কিন্তু ক্রিকেট পাগল ছেলেটির মনের মধ্যে রয়েছে অদম্য ইচ্ছা শক্তি। শুধুই ক্রিকেটের টানে চলে আসেন রাজধানী ঢাকাতে। কিন্তু কঠিন বাস্তবতা মোর্শেদকে বারেবারে পিছু টেনে ধরেছে। যতোই এগিয়ে গেছেন আরও পিছিয়ে পড়েছেন। সবকিছুর মূলে রয়েছে অভাব।

তার ইচ্ছে বল আর ব্যাট হাতে দেশের হয়ে জাতীয় দলে খেলা। তাই দিনের বেশিরভোগ সময় ব্যয় করেন টাকা উপার্জনের জন্য বেচতে হয় চানাচুর। আর বাকি সময়টা তার কাটে মাঠে।

২০১৬ সালে চলে আসেন রাজধানীতে। ওই বছর ১৬ আগস্ট কলাবাগান ক্রীড়া চক্রে প্রাক্টিস করার সুযোগ পান। ঢাকায় এসে এক বড় ভাইয়ের সহযোগীতায় কলাবাগান ক্রীড়া চক্রে (অনর্দ্ধ ঊনিশ) ক্রিকেটে অংশ নেন। সেখানে একটি টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে ৪নং ব্যাটম্যান হিসেবে নেমে ২৪ বলে ৩০ রান করে ক্লাব কতৃপক্ষের দৃষ্টিতে পড়েন। পরবর্তী ম্যাচে ৫৩ বলে ৬৩ রানে অপরাজিত হয়ে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হন মোর্শেদ।

এরপর থেকে নিয়মিত খেলে যাচ্ছেন তিনি। তবে কখনও কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের হয়ে, আবার কখনও অন্য টিমের সঙ্গে। ধারাবাহিক ভাবে বল আর ব্যাটের সঙ্গে থেকেও কোন গতি পাচ্ছেন না মোর্শেদ। কারণ সেই থেকে টানা খেলে যাচ্ছেন কিন্তু সুযোগ পাচ্ছেন না কোন ভালো ক্লাবের হয়ে খেলার। এমনকি ভালো প্রাক্টিসেরও সুযোগ আসছেন না।

শুরুতে তার স্বপ্ন ছিল যেকোন ক্লাবের পক্ষে ২য় ডিভিশনে খেলার সুযোগ নেওয়া। কিন্তু নিজের ওপর দারুণ আত্মবিশ্বাস মোর্শেদের। তাইতো তার স্বপ্ন আরও দীর্ঘ হয়েছে। স্বপ্ন দেখছেন বল এবং ব্যাট হাতে জাতীয় দলের হয়ে খেলার। কিন্তু এ মূহুর্তে সেই স্বপ্ন শুধুই স্বপ্ন। কারণ জাতীয় টিমে জায়গা পাওয়া এতো সহজ নয়। বিভিন্ন ক্লাবে ঘুরে সেটা বুঝতে পেরেছেন মোর্শেদ।

এ অবস্থায় নিজের মনের দৃঢ়তা প্রকাশ করে একুশে টিভি অনলাইনকে মোর্শেদ বলেন, ‘আমি বিশ্বস করি মানুষ যা চায় তা সে করতে পারে, যদি তার ইচ্ছা শক্তিটা প্রবল থাকে। আমি ক্রিকেটকে ভালোবেসে নিজের এলাকা ছেড়েছি। আমি চাই ব্যাট এবং বল দিয়ে দেশের জন্য কিছু করতে। আমি জানি, আমি পারবো। কিন্তু শুধু সুযোগের অভাব।’

তিনি আরও বলেন, ‘সবার মত আমারও স্বপ্ন জাতীয় দলে খেলার। তবে এমূর্তে যদি তা সম্ভব নাও হয়, ঢাকার যেকোন ক্রিকেট ক্লাবের অর্ন্তভুক্ত হয়ে দ্বিতীয় ডিভিশনে খেলতে চাই।’

মোর্শেদ বলেন, আমি রাতের বেলায় রাজধানীর রাইফেল স্কয়ারের সামনে চানাচুর বিক্রি করি। দিনের বেলায় কলাবাগান মাঠে নিয়মিত প্রাক্টিস করছি। যদি কেউ আমার পাশে দাঁড়াতেন আমি অবশ্যই ভালো কিছু করে দেখাতে পারতাম।’

এসএ/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি