ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ড্রাইভিং লাইসেন্স করবেন কীভাবে? জেনে নিন!  

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:৫০ ৯ জুলাই ২০১৮ | আপডেট: ১০:৪৬ ১০ জুলাই ২০১৮

ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে চান? সেক্ষেত্রে আপনাকে আগে শিক্ষানবিস ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে হবে। এরপর আপনি স্মার্ট ড্রাইভিং লাইসেন্সের আবেদন করবেন।   

ঢাকায় বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথোরিটি (বিআরটিএ) মিরপুর, ঢাকা মেট্রো-১, ২, ৩ সার্কেল রয়েছে। এছাড়া প্রতিটি জেলা থেকেও আপনি ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে পারবেন।  

আবেদন করবেন যেভাবে

লিখিত, মৌখিক ও ফিল্ড টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর পুনরায় একটি নির্ধারিত ফরমে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ফি দিয়ে স্মার্টকার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে হবে। অপেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য বয়স ১৮ বছর ও পেশাদার লাইসেন্সের জন্য ২০ বছর হতে হবে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১. নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে।

২. রেজিস্টার্ড ডাক্তার প্রদত্ত মেডিকেল সার্টিফিকেট।

৩. ন্যাশনাল আইডি কার্ড/জন্মসনদ/পাসপোর্টের সত্যায়িত ফটোকপি।

৪. নির্ধারিত ফির (পেশাদার-১৬৭৯ টাকা ও অপেশাদার- ২৫৪২ টাকা) বিআরটিএ’র নির্ধারিত ব্যাংকে জমাদানের রসিদ।

৫. পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন লাগবে।

৬.সদ্য তোলা ১ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।

পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রকৃতি

(১) পেশাদার হালকা (মোটরযানের ওজন ২৫০০ কেজির নিচে) ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য প্রার্থীর বয়স কমপক্ষে ২০ বছর হতে হবে।

(২) পেশাদার মধ্যম (মোটরযানের ওজন ২৫০০ থেকে ৬৫০০ কেজি) ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য প্রার্থীর বয়স কমপক্ষে ২৩ বছর হতে হবে এবং পেশাদার হালকা ড্রাইভিং লাইসেন্সের ব্যবহার কমপক্ষে তিন বছর হতে হবে।

(৩) পেশাদার ভারি (মোটরযানের ওজন ৬৫০০ কেজির বেশি) ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য প্রার্থীর বয়স কমপক্ষে ২৬ বছর হতে হবে।  

কেআই/এসি   

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি