ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:৩৪:২৫

Ekushey Television Ltd.
স্মার্টফোন রিভিউ

নতুন প্রসেসর আর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মিশেল হুয়াওয়ে নোভা থ্রিআই

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৪৪ পিএম, ৬ আগস্ট ২০১৮ সোমবার | আপডেট: ০৫:৫৩ পিএম, ৭ আগস্ট ২০১৮ মঙ্গলবার

বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপি আলোচনায় আসা স্মার্টফোন হুয়াওয়ে নোভা টুআই-এর পর নোভা থ্রি-ই তাক লাগিয়ে দিয়েছে এর নচ ডিসপ্লের কারণে। এবার সময় এসেছে নোভা সিরিজটির নতুন মডেল বাজারে আসার। এরই ধারাবাহিকতায় নোভার নতুন মডেল নোভা থ্রি-আই হার্ডওয়্যারে মুন্সিয়ানা দেখিয়েছে বিশ্বের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। বিশেষ করে ফোনটির কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিশিষ্ট চার ক্যামেরা এবং নতুন মডেলের প্রসেসর ফোনটিকে অন্যান্য ফোনগুলো থেকে আলাদা মর্যাদা প্রদান করবে বলেই আশা করা হচ্ছে।

ডিসপ্লে

ফোনটির অন্যান্য বিশেষ দিকগুলোর মধ্যে রয়েছে মিনিমাল নচ ডিজাইনের ফুল এইচডি+ রেজ্যুলেশন ৬.৩ ইঞ্চির ২.৫ডি কার্ভড বা বাঁকানো আইপিএস হুয়াওয়ে ফুল ভিউ ডিসপ্লে এবং ১৯.৫:৯ অনুপাতের স্ক্রিণ-টু-বডি নকশা যা ব্যবহারকারীদের মুঠোফোনটিকে স্বাচ্ছন্দ্যে মুঠোবন্দি করার সুবিধা প্রদান করবে। নোভা সিরিজের আগের হ্যান্ডসেটগুলোর চেয়ে এই হ্যান্ডসেটটি দেখতে আরো সরু। তবে ফুলভিউ এইচডি ডিসপ্লেতে দেখা যাবে ঝকঝকে ছবি এবং এটির ৮৫ শতাংশ কালার গ্যামুট গ্রাহকদের হ্যান্ডসেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে নিয়ে যাবে নতুন মাত্রায়।

ক্যামেরা

হুয়াওয়ে নোভা থ্রি-আই’র রয়েছে ২৪ মেগা পিক্সেলের প্রাথমিক সেন্সর বিশিষ্ট ডুয়াল ফেসিং ক্যামেরা ও ২ মেগা পিক্সেলের সেন্সর। ২৪ মেগা পিক্সেলের ক্যামেরার সঙ্গে এফ/২.০ ছবিকে করবে আরো প্রাণবন্ত এবং এর ২ মেগাপিক্সলের সেকেন্ডারি সেন্সরের মাধ্যমে হুয়াওয়ে নোভা থ্রিআই আটটি ক্যাটাগরির ২০০টি দিক নির্দেশ করে ছবিকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করবে। হ্যান্ডসেটকে যারা আত্মপ্রকাশের উপাদান হিসেবে ভেবে থাকেন তাদের কথা ভেবেই হুয়াওয়ে নোভা থ্রিআই-তে রয়েছে রিয়েল ক্যামেরা প্রযুক্তি। ২৪ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরার পাশাপাশি এই হ্যান্ডসেটটির রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর ও ২ মেগা পিক্সেলের সেকেন্ডারি সেন্সর বিশিষ্ট রিয়ার ক্যামেরা।  

প্রসেসর-নিরাপত্তা-মেমরি

এতে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হয়েছে হুয়াওয়ের নিজস্ব হাইসিলিকন কিরিন ৭১০ চিপসেটের প্রসেসর যার কৃত্রিম বৃদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি হ্যান্ডসেট ব্যবহারে দারুনভাবে প্রভাব ফেলবে। উন্নত নিরাপত্তা নিশ্চিৎ করতে এতে ব্যবহার করা হয়েছে ফেস আনলক প্রযুক্তি এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যা ৩৬০ ডিগ্রি কোণে ব্যবহারকারীর আঙ্গুলের ছাপ সনাক্ত করতে সক্ষম। প্রসেসরের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নোভা থ্রিআইতে যুক্ত করা হয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে হ্যান্ডসেটটির মেমোরি বৃদ্ধি করা যাবে ২৫৬ জিবি পর্যন্ত। 

ওএস

অপারেটিং সিস্টেম (ওএস) হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ওরিও-এর সর্বশেষ সংস্করণ ৮.১। এছাড়া হুয়াওয়ের নিজস্ব কাস্টমাইজড ইউজার ইন্টারফেস ইএমইউআই ৮.২ সংস্করণ ব্যবহার করা হয়েছে এতে। হাইকেয়ার, ওয়াই-ফাই ব্রিজ, ইউজার মোড, বিল্ট-ইন অ্যান্টিভাইরাস, হুয়াওয়ে আইডি ও ক্লাউড স্টোরেজ এবং হুয়াওয়ে শেয়ার ফিচার যুক্ত করা হয়েছে হালনাগাদকৃত ইএমইউআই সংস্করণে।

চমৎকার সিমেট্রিক ডিজাইনের নোভা থ্রিআই গত মাসের শেষ সপ্তাহে বাংলাদেশের বাজারে উন্মুক্ত করা হয়। আগামি ১০ আগস্ট নেওয়া হচ্ছে ডিভাইসটির অগ্রিম বুকিং। আগামী সপ্তাহ থেকে দেশব্যাপি হুয়াওয়ের সকল ব্র্যান্ড শপ এবং অনুমোদিত মোবাইল আউটলেটে পাওয়া যাবে হুয়াওয়ে নোভা  থ্রি-আই। বাংলাদেশের বাজারে স্মার্টফোনটির দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ২৮ হাজার ৯৯০ টাকা।

//এস এইচ এস//



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি