ঢাকা, রবিবার   ২০ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

নবজাত শিশু কাঁদলে পানি বের হয় না কেন, জানেন কি?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৫১ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কান্না করলে চোখের কোল বেয়ে পানি গড়িয়ে পড়ে, গাল ও চিবুক ভিজে যায়। এটা সবাই জানেন। কিন্তু জন্মের পর প্রথম কয়েকটা দিনের কান্নাকাটিতে শিশুর চোখে পানি কেন আসে না তা কি জানেন?

অথচ কান্নাকাটির এই শব্দই জানিয়ে দেয়, কোন শিশু পৃথিবীর আলোর মুখ দেখেছে, ভূমিষ্ঠ হয়েছে। আরও একটি ইঙ্গিত দেয়, শিশুটি জন্মেছে সুস্থ শরীরে। তার শরীরের সবই ঠিকঠাকই চলছে।

চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় শিশুদের এই কান্নাকে বলা হয়, ‘বেবি ক্রাই’। অথচ সেই কান্নায় শিশুর চোখ থেকে এক বিন্দু পানিও গড়িয়ে পড়ে না। জন্মের সময় থেকে শুরু করে ক্ষণে ক্ষণে কেঁদে উঠে শিশু। এভাবে সপ্তাহ তিন-চারেকের কান্নায় সদ্যোজাতের চোখ দিয়ে পানি পড়ে না বিন্দুমাত্রও। 

কেন পড়ে না?

এ বিষয়ে চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞরা বলেন, সদ্যোজাতের চোখে অশ্রুনালী থাকে বটে; কিন্তু জন্মের পরপরই তা পুরোপুরি গড়ে ওঠে না। জন্মের পর শিশুর সেই অশ্রুনালীর পুরোপুরি গড়ে উঠতে সময় লাগে কম করে হলেও তিন-চার সপ্তাহ। আর অশ্রুনালীর গঠন সম্পূর্ণ হয় না বলেই দুঃখে, আবেগে, অস্বস্তিতে, আনন্দে শিশু কেঁদে উঠলেও তার চোখের কোল বেয়ে পানি গড়িয়ে পড়ে না। 

যদিও প্রথম কয়েক দিন চোখে পানি আসে না। কিন্তু কয়েক দিন গেলে শিশু কান্না করলে সেই সময় তার চোখের কোলে জমা হয় অশ্রুবিন্দু। যা সদ্যোজাতের চোখকে ভিজিয়ে রাখতে সাহায্য করে। চোখকে রাখে সুস্থ ও সজীব।

জন্মের পর তিন থেকে চার সপ্তাহ কাটতে না কাটতেই শিশুর অশ্রুনালীর গঠন সম্পূর্ণ হয়ে যায়। তখন শিশু কাঁদলেই তার চোখ দিয়ে পানি বেরিয়ে আসে। তা গড়িয়ে পড়ে শিশুর গাল ও চিবুকে।

এএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি