ঢাকা, মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

নির্মাণ খাতে ৫ লাখ শ্রমিককে প্রশিক্ষণ দেবে এইচবিআরই

প্রকাশিত : ১৮:১৮ ২২ এপ্রিল ২০১৮ | আপডেট: ১১:৩৫ ২৩ এপ্রিল ২০১৮

নির্মাণশ্রমিকদের দক্ষতা বাড়াতে দেশব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু করতে যাচ্ছে হাউজিং অ্যান্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট (এইচবিআরআই)। প্রশিক্ষণ কাজ এগিয়ে নিতে এরইমধ্যে ৮০জন প্রকৌশলীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এভাবে আগামী ছয় মাসের মধ্যে মোট ৩৮৪ জন প্রকৌশলীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যারা জেলা পর্যায়ে গিয়ে ট্রেইনার হিসেবে শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার মাধ্যমে সরকারের পাঁচ লাখ পেশাদার নির্মাণশ্রমিক তৈরির পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্য বাস্তবায়ন করবেন। এইচবিআরআই সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, রাজধানীর কল্যাণপুরে অবস্থিত এইচবিআরআই নির্মাণশ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দিতে অর্থসহায়তাসহ প্রয়োজনীয় প্রস্তাবনা সম্প্রতি গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছে। প্রস্তাবনাটি পরিকল্পনা কমিশন ও জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে পাশ হলেই এ প্রশিক্ষণ প্রক্রিয়া শুরু হবে। তবে প্রস্তবনা পাশ হওয়ার জন্য ছয় মাস সময় হাতে রেখে এরইমধ্যে প্রশিক্ষণের প্রাথমিক কাজ শুরু হয়ে গেছে। দেশব্যাপী মাঠ পর্যায়ে প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য দক্ষ প্রশিক্ষক গড়ে তোলা হচ্ছে। এইচবিআরআই ভবনে এরইমধ্যে তিনধাপে ৮০ জন প্রকৌশলীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এভাবে প্রতিটি জেলা থেকে ২জন ডিপ্লোমা ইন সিভিল এবং ৪জন ডিপ্লোমা ইন ইলেক্ট্রনিক্স হিসেবে মোট ৩৮৪ জন প্রকৌশলীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে এ প্রকৌশলী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শেষ করা হবে। এরপর প্রশিক্ষিত প্রকৌশলীরা দেশের ৬৪ জেলায় মাঠ পর্যায়ের নির্মাণ শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দেবেন।

প্রকল্পের বিষয়ে কথা হয় প্রকল্পটির সমন্বয়ক ও এইচবিআরআইয়ের জ্যেষ্ঠ গবেষক আকতার হোসেন সরকারের সঙ্গে। নিয়োগের বিষয়ে খসড়া প্রস্তাবনা মন্ত্রণালয়ে উপস্থাপনের বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এটির আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয় এ বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি। প্রাথমিক পর্যায়ে এখন ট্রেনিং ফর ট্রেইনার (টট) কার্যক্রম চলছে।

বর্তমানে গণপূর্ত, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড, স্থানীয় সরকার ইত্যাদি প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলীদের প্রশিক্ষণ এখানে দেওয়া হচ্ছে। তারা এ প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। প্রশিক্ষণ শেষে তারা যে জ্ঞান অর্জন করবেন, তা সাধারণ শ্রমিকদের শেখাবেন। আমাদের আলোচনা চলছে। প্রতি জেলার পিডব্লিউডি অফিসে এ প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যাপারে। আগামী  পাঁচ বছর পর্যন্ত এ প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছে। প্রশিক্ষণের পরে নির্মাণশ্রমিকদের একটি সনদপত্র দেওয়া হবে। সেই সনদ তাঁরা দেশে-বিদেশে দেখাতে পারবেন। এটি দেখালে শ্রমিকের পেশাগত দক্ষতা প্রকাশ পাবে, যা তাদের পারিশ্রমিক বাড়াতে সাহায্য করবে।

জেলা পর্যায়ে প্রতি ব্যাচে ২০ জন শ্রমিককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। হাতেকলমে তারা শিখবেন মোট ৬০ দিন। প্রশিক্ষণের সময় শ্রমিকেরা প্রতিদিন নাস্তা ও দুপুরের খাওয়াসহ যাতায়াতের জন্য ১০০টাকা ভাতা পাবেন। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত এ প্রশিক্ষণ চলবে।

জানা গেছে, এই প্রকল্পের জন্য সরকারের কাছে তিন হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) পাঠিয়েছে এইচবিআরআই। ডিপিপি পাশ হলেই প্রকল্পের প্রশিক্ষণ কাজ এগিয়ে নিতে সারা দেশ থেকে ১ হাজার প্রকৌশলী নিয়োগ দেওয়া হবে। নিয়োগের ক্ষেত্রে শুধু ডিপ্লোমা ইন সিভিল ও ডিপ্লোমা ইন ইলেক্ট্রনিক্স এ পাশ করা প্রার্থীরাই আবেদনের সুযোগ পাবেন। প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা হিসেবে তাদের নিয়োগ দেওয়া হবে। প্রকল্পের মেয়াদ অনুযায়ী আগামী ৫ বছরের জন্য অস্থায়ীভাবে এ নিয়োগ দেওয়া হবে। তবে সরকারি চাকরিতে প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তাদের সমমানের সব ধরণের সুযোগ সুবিধা থাকবে।

আরকে// এআর

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি