ঢাকা, শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

পেঁয়াজ-রসুন খান না যে গ্রামের লোক!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:৪৭ ২৮ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১২:৫১ ২৮ নভেম্বর ২০১৯

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পাক কিংবা কমে যাক তা নিয়ে মাথা ব্যাথা নেই এমন লোক হয়তো পাওয়া যাবে। কিন্তু একটি গ্রামের কারোরই পেঁয়াজের ব্যাপারে কোন আগ্রহ নেই, তা অনেককেই আশ্বর্য করবে! ওই গ্রামের মানুষ পেঁয়াজ খাওয়া তো দূরের কথা, ছুঁয়েও দেখেন না কোন দিন।

আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের বিহার রাজ্যের জাহানাবাদ জেলার ৩০ কিলোমিটার দূরে চিরী পঞ্চায়েতের ওই গ্রামটি হলো ত্রিলোকি বিগহা। ওই গ্রামে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি বা কমার কোনো প্রভাবই পড়ে না। খবর এনডিটিভির।

৩০ থেকে ৩৫ ঘরের এই গ্রামটিতে অধিকাংশই যাদব পরিবারের। যারা পেঁয়াজ-রসুন কিছুই খান না। এই পুরো গ্রামে পেঁয়াজ ও রসুন বাজার থেকে নিয়ে আসাও নিষেধ।

গ্রামের এক প্রবীণ রামবিলাস জানান, বহু বছর ধরেই এখানে পেঁয়াজ-রসুন খাওয়া হয় না। তাদের পূর্বপুরুষরাও পেঁয়াজ খেতেন না। আজও সেই পরম্পরা চলে আসছে।

গ্রামের আরেক বাসিন্দা সুবরীতি দেবী বলেছেন, এই গ্রামেই ঠাকুরের একটি মন্দির আছে। তাদের পূর্বপুরুষরা পেঁয়াজ না খাওয়ার নিয়ম তৈরি করেছিলেন, তাই যা আজও বজায় রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ৪০-৪৫ বছর আগে কোনো একটি পরিবার এই পরম্পরা ভাঙার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু তা করার ফলে তার পরিবারে অশুভ এমন কিছু ঘটনা ঘটেছিল, তারপর থেকে গ্রামের কেউই পেঁয়াজ খাওয়ার সাহস করেন না।

চিরী গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সঞ্জয় কুমার জানিয়েছেন, বহু বছর ধরেই গ্রামে এই পরম্পরা চলে আসছে। এটি অন্ধবিশ্বাসও হতে পারে। কিন্তু এটিই পরম্পরা হয়ে গেছে এখন।

তবে শুধু পেঁয়াজ আর রসুন নয়, এই গ্রামের নিয়ম এতটাই কড়া যে মাংস কিংবা মদ কেউ ছুঁয়েও দেখেন না।

এএইচ/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি