ঢাকা, সোমবার   ০৩ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ২০ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

বিশ্বজুড়ে একদিনে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫৯ ১১ জুলাই ২০২০

উৎপত্তির প্রায় সাড়ে ছয় মাসে প্রথমবারের মতো একদিনে ২ লাখ ৩৭ হাজার মানুষ করোনার শিকার হলেন। যা রীতিমতো উদ্বেগ তৈরি করেছে বিশেজ্ঞদের মাঝে। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি পৌনে ২৬ লাখের ১৬ হাজারে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ গেছে আরও সাড়ে ৫ হাজার জনের।এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটিতে ভুগে না ফেরার দেশে বিশ্বের ৫ লাখ ৬২ হাজার মানুষ। আক্রান্তদের মধ্যে সোয়া ৭৩ লাখের বেশি ভুক্তভোগী সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন।  

এর মধ্যে ইউরোপের কয়েকটি দেশ ও উৎপত্তিস্থল চীনে নিয়ন্ত্রণে ভাইরাসটি। তবে দেশগুলো স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলেও মুক্ত হচ্ছে না পুরোপুরি। এখনও প্রতিদিনই কমবেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটছে। 

আজ শনিবার বাংলাদেশ সময় সকাল পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের তালিকায় যুক্ত হয়েছে বিশ্বের ২ লাখ ৩৬ হাজার ৯১৮ জন মানুষ। এতে করে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ১ কোটি ২৬ লাখ ১৬ হাজার ৫৭৯ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ গেছে আরও ৫ হাজার ৪১৬ জনের। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা ৫ লাখ ৬২ হাজার ৩৯ জনে ঠেকেছে। 

এর মধ্যে শুধু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই আক্রান্তের সংখ্যা ৩২ লাখ ৯১ হাজার ৭৮৬ জনে দাঁড়িয়েছে। না ফেরার দেশে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৭১ জন মানুষ।  

ব্রাজিলে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ১৮ লাখ ৪ হাজার ৩৩৮ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণহানি ৭০ হাজার ৫২৪ জনে ঠেকেছে। 

সংক্রমণে তিনে থাকা দক্ষিণ এশিয়ার ভারতে গত একদিনে রেকর্ড সংক্রমণে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ২২ হাজার ছাড়িয়েছে। প্রাণহানি ২২ হাজার ১৪৪ জনে দাঁড়িয়েছে। 

রাশিয়ায় সংক্রমিতের সংখ্যা ৭ লাখ ১৪ হাজার ছুঁই ছুঁই। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রাণহানি ১১ হাজার ছাড়িয়েছে। 

লাতিন আমেরিকার আরেক দেশ পেরুতেও আক্রান্ত ৩ লাখ ২০ হাজার ছুঁই ছুঁই। যেখানে মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার মানুষের।

এ অঞ্চলের আরেক ভুক্তভোগী চিলিতেও সংক্রমণ ৩ লাখ ৯ হাজার ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার ৭৮১ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। 

নিয়ন্ত্রণে আসা স্পেনে আক্রান্ত ৩ লাখ ১ হাজারের কাছাকাছি। প্রাণ গেছে সেখানে ২৮ হাজার ৪০৩ জনের।

যুক্তরাজ্যকে পেছনে ফেলে সংক্রমণে আটে উঠলো লাতিন আমেরিকার আরেক দেশ মেক্সিকো। এখন পর্যন্ত সেখানে ২ লাখ ৮৯ হাজার ১৭৪ জন করোনার শিকার হয়েছেন। এর মৃত্যু হয়েছে ৩৪ হাজার ১৯১ জনের। 

যুক্তরাজ্যে ২ লাখ ৮৮ হাজার ১৩৩ জনের আক্রান্তে মৃতের সংখ্যা ৪৪ হাজার ৬৫০ জনে ঠেকেছে। 

মধ্যপ্রাচ্যের ইসলামী প্রজাতান্ত্রিক দেশ ইরানে করোনার শিকার ২ লাখ ৫২ হাজার ৭২০ জন মানুষ। প্রাণহানি ঘটেছে ১২ হাজার ৪৪৭ জনের। 

ইতালি আর পাকিস্তানকে পেছনে ফেলে সংক্রমণের হারে এগারোতে উঠেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আফ্রিকার দেশটিতে ইতোমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই লাখ ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৮৬০ জনের। 

পাকিস্তানে সংক্রমিতের সংখ্যা ২ লাখ ৪৩ হাজারের বেশি। মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজারের অধিক মানুষ। 

ইতালিতে ২ লাখ ৪২ হাজার ৬৩৯ জন মানুষ করোনার ভুক্তভোগী। এর মধ্যে পৃথিবী ছেড়েছেন ৩৪ হাজার ৯৩৪ জন। 
 
সৌদি আরবে এখন পর্যন্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ২৬ হাজারের বেশি। এর মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ১৫১ জন। 

তুরস্কে করোনার ভুক্তভোগী ২ লাখ প্রায় ১১ হাজার। যেখানে প্রাণহানি ঘটেছে ৫ হাজার ৩২৩ জনের। 
 
আর বাংলাদেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া তথ্যমতে, গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭৮ হাজার ৪৪৩ জন। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ২ হাজার ২৭৫ জনের। আর সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ৮৬ হাজার ৪০৬ জন। 

এআই/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি