ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০, || চৈত্র ১৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বিশ্বের কয়েকটি দুর্ভেদ্য এলাকা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৪৭ ২২ আগস্ট ২০১৭ | আপডেট: ২০:৪০ ২২ আগস্ট ২০১৭

অভেদ্যকে ভেদ করার বাসনা মানুষের সহজাত। না দেখাতে দেখতে চায় মানুষ। দুনিয়ার সব স্থানেই কি পা রাখতে পেরেছে মানুষ? হয়তো পারেনি এখনো। তবুও ঝুকিপূর্ণ স্থানে স্থানে যাওয়ার উদগ্র বাসনা সবার মনেই আছে। জীবন বাজি নিয়ে চাঁদে যাচ্ছে না! হিমালয় চূড়ায়ও তো যাচ্ছে। কিন্তু কিছু স্থানে যাওয়া কোনোভাবেই সম্ভব নয়। তেমন কিছু স্থানের কথাই থাকছে আজকের ফিচারে।

স্নেক আইল্যান্ড
এটি পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর স্থান! পৃথিবীর সবচেয়ে বিষাক্ত সাপের বাস এই দ্বীপে। এর বিষ মানুষের মাংস পর্যন্ত গলিয়ে দিতে পারে। তাই এ স্থানে কেউ যেতে পারেন।

পাইন গ্যাপ

সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্ট এজেন্সি ও অস্ট্রেলিয়ান সরকার পাইন গ্যাপ এলাকাটির পর্যবেক্ষণ করে চলছে। এই জায়গার ওপর দিয়ে কেউ বিমান নিয়েও উড়ে যেতে পারে না।

গোপন নথিপত্র
সীমিত সংখ্যক অভিজাত কিছু ভ্যাটিকানের সদস্য এই অনন্য গ্রন্থাগারে প্রবেশ করতে পারে। এখানে শয়তানের সঙ্গে যোগ স্থাপন, অন্য গ্রহের বিভিন্ন রূপ ও প্রাচীন মায়া সম্পর্কিত তথ্য পাওয়া যায়। এছাড়া এখানে সব গোপন বই ও তথ্য রাখা আছে।

হ্যাভেন কো
হ্যাভেন কো ইংল্যান্ডের একটি পুরনো বিমান-নিরোধক এলাকা। এখানে বহু প্রতিষ্ঠানের ভিপিএন, সার্ভার, এনক্রিপশন কোড ও প্রক্সি রাখা আছে। হ্যাভেন কো-তে কাজ করতে হলে কোনো রকমের স্প্যাম, হ্যাকিং বা শিশু সংক্রান্ত কোন অশ্লীল জিনিস থাকলে চলবে না।

গোল্ড ভল্ট
ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের সোনা রাখার এই ভল্টে প্রায় ৫ হাজার টন সোনা রাখা আছে! এখানে প্রবেশ করতে বোমা-রোধক একটি দরজা পার হতে হয়। সেটি পার হতে ব্যবহৃত হয় কণ্ঠস্বর চেনার মতো উচ্চমানের এক ব্যবস্থা। তাই এখানে যাওয়ার সাহস কেউ করে না। সূত্র : ইন্টারনেট।
//এআর

New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি