ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪

বিশ্ব যুব উৎসবে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:১৬, ৬ মার্চ ২০২৪

রাশিয়ার সিরিয়াস ফেডারেল টেরিটরিতে (সোচি) অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্ব যুব উৎসব বা ওয়ার্ল্ড ইয়ুথ ফেস্টিভ্যাল। উৎসবে সবার হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে টিম বাংলাদেশ।

নানা আয়োজনে বাংলাদেশের যুব প্রতিনিধিরা তাদের দক্ষতা ও প্রতিভার পরিচয় দিয়ে উসবের সবাইকে মুগ্ধ করেছে। বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তাদের অংশগ্রহণ, সেমিনারে আলাপ-আলোচনা, বিভিন্ন গেম শো, বিজ্ঞান বিষয়ক সেমিনার সবক্ষেত্রেই বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা তাদের জাতীয় মর্যাদা উজ্জ্বল করে তুলেছে এই আয়োজনের ১৮০টি দেশের কাছে।

বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের আন্তরিকতা, বন্ধুত্বপূর্ণ মনোভাব এবং সৃজনশীলতার প্রশংসা করছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা। বিশেষ করে বাংলাদেশের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ স্টলে বিভিন্ন পরিবেশনা সকলের মন কেড়ে নিয়েছে।

এই উৎসবে বাংলাদেশের ৯৫ জন যুব প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করছে। তারা সবাই বিভিন্ন আয়োজন, সেমিনার, কুইজ, গেম কম্পিটিশনে অংশ নিয়ে বিশেষ সফলতা অর্জন করেছে। এছাড়া এই উৎসবে অংশগ্রহণের ফলে বাংলাদেশের যুব সমাজের জন্য বিভিন্ন নতুন সুযোগ তৈরি হতে পারে বলেও মন্তব্য সংশ্লিষ্টদের।

এ বিষয়ে বিশ্ব যুব উৎসব রাশিয়ার বাংলাদেশ প্রস্তুতি কমিটির চেয়ারম্যান তারেক মাহমুদ এবং সাধারণ সম্পাদক জিয়া উদ্দীন হায়দার বলেন, আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্বের ১৮০টি দেশের সম্মুখে বাংলাদেশ তার ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি তুলে ধরতে পারছে। আমরা আশা করি, বাংলাদেশের তরুণ-তরুণীরা এই উৎসবে সর্বোচ্চ অংশগ্রহণ করবেন এবং বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের মর্যাদা আরও বৃদ্ধি করবেন।

তারা জনান, বাংলাদেশের সংস্কৃতি তুলে ধরার জন্য বাংলাদেশ স্টলে দেশের সংস্কৃতি এ ঐতিহ্য সংশ্লিষ্ট পণ্যগুলো প্রদর্শন করা হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে পাটের তৈরি সোনালী ব্যাগ, একতারা, পালকি, রিকশাচিত্র, বাংলাদেশের মুদ্রা, ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রদর্শনী ইত্যাদি। এছাড়া উৎসবের নির্দিষ্ট দিনে টিম বাংলাদেশ নিজেদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিধান করে বর্ণাঢ্য র‌্যালি করেছেন বলেও জানান তারা।

এ বিষয়ে রুশ যুব প্রতিনিধি অ্যারিনা বলেন, বাংলাদেশের তরুণীরা অসাধারণভাবে সুন্দর এবং তাদের পোশাকগুলোও চমৎকার। তাদের সাথে কথা বলে আমার খুব ভালো লেগেছে।

চীনা তরুণ লি বলেন, বাংলাদেশের তরুণরা খুব প্রতিভাবান। তাদের গান, নাচ এবং আবৃত্তি আমাকে মুগ্ধ করেছে।

ভারতীয় প্রতিনিধি হরি নারায়ণ বলেন, বাংলাদেশের তরুণরা খুব বন্ধুত্বপূর্ণ এবং সহযোগিতাপূর্ণ। তাদের সাথে বন্ধুত্ব করতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে। বাংলাদেশের তরুণদের মধ্যে একটা অনবদ্য উৎসাহ আছে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের আন্তর্জাতিক যুব সহযোগিতা বৃদ্ধির আদেশ অনুসারে ২০২৪ সালে দেশটিতে এ উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে ১৮০টি দেশের ২০ হাজার যুব নেতা অংশ নিচ্ছেন। আর এই আয়োজনে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশের অংশগ্রহণও। বাংলাদেশ ও রাশিয়ার দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ধারাবাহিকতায় এবার ৯৫ জন তরুণ-তরুণী বিশ্ব দরবারে তুলে ধরছেন নিজেদের দেশকে। এছাড়া নতুন নতুন ধারণার মাধ্যমে বাংলাদেশের নাম বিশ্ব দরবারে আরও বড় আঙ্গিকে তুলে ধরবেন। একইসঙ্গে তাদের সুযোগ হবে ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিতে অনন্য দেশ রাশিয়াকে খুব কাছ থেকে জানার ও দেখার।
কেআই//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি