ঢাকা, শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২, || মাঘ ১৪ ১৪২৮

ভিটামিন সি-এর অভাবে কী হয় জানেন?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৫৭, ১১ জানুয়ারি ২০২২

ভিটামিন আমাদের প্রত্যেকের জীবনে খুবই প্রয়োজনীয়। কারণ ভিটামিন শরীরের অভ্যন্তরীণ নানা ধরনের কাজে সাহায্য করে। তাই ভিটামিনের অভাব ঘটলে শরীরে দেখা দিতে পারে নানা উপসর্গ। এই ভিটামিনের তালিকায় প্রয়োজনের নিরিখে একদম উপরের দিকেই রয়েছে ভিটামিন সি।

ভিটামিন সি-এর বিজ্ঞানসম্মত নাম হল অ্যাসকরবিক অ্যাসিড। এই অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ভিটামিনটি শরীরের নানা কাজে সহয়তা করে। বিশেষত, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এই ভিটামিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

সাধারণত এই ভিটামিনটি খাবারের মাধ্যমে শরীরে পৌঁছায়। তবে আমাদের খাবারদাবারের কোন ঠিকঠিকানা না থাকায় এই ভিটামিন শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে নাও পৌঁছাতে পারে। তখনই দেখা দেয় সমস্যা।

এক্ষেত্রে ভিটামিন সি-এর অভাবের কথা উঠলে সকলেই একবাক্যে স্কার্ভি রোগটির কথা বলতে শুরু করবেন। আর বড়জোর বলতে পারেন ইমিউনিটি কমে যাওয়ার কথা। তবে এসবের বাইরেও ভিটামিন সি-এর অভাব হলে আরও কয়েকটি সমস্যা দেখা দিতে পারে। সেগুলি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক-

> ভিটামিন সি-এর অভাব হলে শরীরে থাইরয়েড হর্মোনের ক্ষরণ অনেকটাই বাড়তে পারে। এই সমস্যার নাম হাইপার থাইরয়েডিজম। এক্ষেত্রে দ্রুত ওজন কমে যাওয়া, খিদে চলে যাওয়া, বুক ধড়ফড় করা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে।

> ভিটামিন সি কম থাকলে শরীরে দেখা দিতে পারে নানান ত্বকের রোগ। এক্ষেত্রে ত্বক জ্বালা করে, চুলকায়।

> দাঁতের স্বাস্থ্য ভালো রাখার ক্ষেত্রে ভিটামিন সি হতে পারে আপনার অন্যতম হাতিয়ার। এই ভিটামিন শুধু আপনার দাঁতই ভালো রাখে না, বরং মাড়ির স্বাস্থ্যও ভালো রাখে। তাই শরীরে এই ভিটামিনের অভাব হলে মাড়ি থেকে রক্ত পড়তে পারে।

> বিভিন্ন গবেষণায় ইতোমধ্যেই দেখা গিয়েছে, শরীরে আয়রন শোষণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয় ভিটামিন সি। আর এক্ষেত্রে শরীরে আয়রন শোষণ কম হলে হতে পারে অ্যানিমিয়া অসুখটি। এক্ষেত্রে শরীরে লোহিত রক্ত কণিকার অভাব হয়।


কী ভাবে মেটাবেন এই ভিটামিনের ঘাটতি?

ভিটামিন সি আমাদের শরীরের পক্ষে খুবই জরুরি। এই ভিটামিন যে কোনও লেবু জাতীয় ফলেবেশি পরিমাণে থাকে। এছাড়া পেয়ারাতে এই ভিটামিন রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে। এছাড়া প্রতিটি ফলেই কিছু না কিছু পরিমাণ ভিটামিন সি থাকে। অন্যদিকে পালংশাক, কাঁচামরিচেও থাকে এই ভিটামিন। ভিটামিন সি পেতে চাইলে ফলের উপর ভরসা করাই ভালো। এক্ষেত্রে খাবার খাওয়ার দেড় থেকে দুই ঘণ্টা বাদে ফল খেলে বেশি উপকার মেলে।

বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা এই ভিটামিন সাপ্লিমেন্ট দিতে পারেন। তবে এভাবে ভিটামিন সি সাপ্লিমেন্ট খেতে শুরু করলে শরীরে ভয়ঙ্কর প্রভাব পড়তে পারে।

সূত্র: এই সময়
এমএম/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি