ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪

মামলা নিষ্পত্তিতে নজির গড়লেন বিচারপতি ইনায়েতুর রহিম

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:০৫, ৬ জুন ২০২৪ | আপডেট: ১০:০৭, ৬ জুন ২০২৪

সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে ২৬৯টি মামলা নিষ্পত্তি করে নজির সৃষ্টি করেছেন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম।

বুধবার বেলা আড়াইটা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত এসব মামলার উপর শুনানি নিয়ে আদেশ দেন চেম্বার কোর্ট বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম।

এসব মামলা মাত্র চার ঘণ্টায় পক্ষদ্বয়ের শুনানি নিয়ে নিষ্পত্তির আদেশ দেন তিনি। মামলার মধ্যে রয়েছে হাইকোর্টের বিভিন্ন রায় ও আদেশের বিষয়ে সংক্ষুব্ধ পক্ষে আনা মামলা। এর মধ্যে সিভিল, ক্রিমিনাল, রিটসহ বিভিন্ন মামলা ছিল।

এর আগে গত ৩১ আগষ্ট বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ২৬৬টি মামলা শুনানি করে আদেশ প্রদান করেছিলেন। বুধবার সে রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছেন চেম্বার জজ বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম।

মামলা নিষ্পত্তির এমন নজির সৃষ্টির বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় এটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, চেম্বার কোর্টে বিভিন্ন জরুরি মামলা বরাবরের মতো আজকের কার্যতালিকায় শুনানির জন্য ছিল। এসব মামলা শুনানির জন্য আইনজীবীরাও আদালত কক্ষে অপেক্ষা করছিলেন। কার্যতালিকায় থাকা ২৬৯টি মামলার প্রতিটি উভয়পক্ষকে শুনে নিষ্পত্তি করেছেন চেম্বার কোর্ট বিচারপতি। 

এটর্নি জেনারেল আরও বলেন, চেম্বার কোর্ট বিচারপতি দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি তার কমিটমেন্টের নজির স্থাপন করলেন। এটিই একজন কর্মঠ বিচারকের একটা প্রকৃষ্ঠ উদাহরণ। অন্যরা এর থেকে অনুপ্রাণিত হবেন নিশ্চয়ই। এটাই প্রত্যাশা থাকবে। 

তিনি বলেন, ভবিষ্যতের জন্য এটি উদাহরণ হয়ে থাকবে যে, মামলার জট কমাতে এভাবে কাজ করা যায়। চেম্বার কোর্ট বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম অসাধারণ কাজ করছেন। ফলে মামলার জট হ্রাসের পাশাপাশি বিচারিক কাজে গতিশীলতা বাড়বে।

সমস্ত আইনজীবীরা চেম্বার কোর্ট বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমকে অভিবাদন জানিয়েছেন।

সুপ্রিমকোর্টের সিনিয়র এডভোকেট ব্যারিস্টার সালাউদ্দিন দোলন বলেন, আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্টে এক কার্য  দিবসে এতো সংখ্যক মামলা নিষ্পত্তি করে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম নজির স্থাপন করেছেন। এ ধরনের নজির বিচার বিভাগের মামলা নিষ্পত্তিতে গতিশীলতা আনবে। এতে বিচারপ্রার্থী ও আইনজীবী উভয়ই উপকৃত হয়েছেন। পাশাপাশি মামলা জট কমার সাথে উচ্চ আদালতের ভাবমূর্তিও বৃদ্ধি পাবে।  

এর আগে হাইকোর্টের বিচারপতি হিসাবে দায়িত্ব পালনকালে একদিনে এক হাজারের অধিক মামলা নিষ্পত্তি করে নজির সৃষ্টি করেছিলেন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ। ফলে হাইকোর্ট বিভাগে বিভিন্ন বেঞ্চে মামলা শুনানি ও নিষ্পত্তিতে গতিশীলতা বৃদ্ধি পায়। আপিল বিভাগে নিয়োগ লাভের পর চেম্বার কোর্ট বিচারপতি হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়ে মামলা নিষ্পত্তিতে দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছেন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম।

আইনজীবীরা এতে তার প্রশংসা করে আশা প্রকাশ করেন যে, সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগে মামলা নিষ্পত্তিতে এটি গতিশীলতা আনবে। ফলে মামলা জট পর্যায়ক্রমে কমে আসবে।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি