ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৮ ৫:৫৬:০৫

Ekushey Television Ltd.

শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার ঘটনায় অভিযোগপত্র দাখিল

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৩৭ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার



কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের প্রবেশপথে জঙ্গি হামলার মামলায় ৫ জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ। এ মামলায় ২৩ জনের সম্পৃক্ততা থাকলেও, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন অভিযানে ১৮ জন নিহত হওয়ায় তাদেরকে অভিযোগপত্র থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বাকি ৫ জন কারাগারে বন্দী রয়েছে।

বুধবার বিকালে কিশোরগঞ্জ জেলা পুলিশের সম্মেলনকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ। মামলার পাঁচ আসামিরা হলো কিশোরগঞ্জের জাহিদুল হক তানিম, গাইবান্ধা জেলার জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী, চাপাইনবাবগঞ্জের মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, গাইবান্ধা জেলার মো. আনোয়ার হোসেন, কুষ্টিয়া জেলার সবুর খান হাসান।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৭ জালাই ঈদুল ফিতরের জামাতের আগে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের প্রবেশপথের আজিম উদ্দিন হাইস্কুলসংলগ্ন সবুজবাগ সংযোগ সড়কপথে জঙ্গি হামলার সময় পুলিশ ও জঙ্গি সংঘর্ষে গৃহবধূ ঝর্ণা রাণী ভৌমিক নিজ ঘরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।

এছাড়া এ ঘটনায় জঙ্গিদের চাপাতির কোপে জহুরুল ও আনসারুল নামে দুই পুলিশ কনস্টেবল ও আবির রহমান নামে এক জঙ্গি নিহত হয় এবং ১০ পুলিশ সদস্য ও চার মুসল্লিসহ ১৪ জন গুরুতর আহত হয়।

ঘটনার পর পাশের আজিমউদ্দিন স্কুলের মাঠসংলগ্ন মুফতি মোহাম্মদ আলী মসজিদের সামনের টয়লেটে আত্মগোপনে থাকা হামলাকারী জঙ্গি দলের দলের সদস্য শফিউল ইসলাম ওরফে ডন ওরফে মোকাতিলকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটক করে র‌্যাব। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় র‌্যাব পাহারায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। তাকে চিকিৎসা শেষে কিশোরগঞ্জ আনার পথে একই বছরের ৬ আগস্ট রাত ১১টার দিকে পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইলের ঘোষপাড়া ডাংরী নামক স্থানে একদল জঙ্গি অতর্কিত হামলা চালিয়ে আসামি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়।

এমজে/



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি