ঢাকা, শনিবার   ২৮ মে ২০২২, || জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৯

সস্তায় আলপনা গ্রাম ভ্রমণ (ভিডিও)

সাদ্দাম উদ্দিন আহমদ

প্রকাশিত : ১৭:৪৪, ১২ মে ২০২২ | আপডেট: ১৯:৪০, ১২ মে ২০২২

গ্রাম শব্দটি শুনলেই আমাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে ফসলের মাঠ, খড়ের চাল, মাটির দেয়াল, গরুর পাল, নদীর ধারে কাঁশফুল। গ্রামের এইসব দৃশ্যসহ নানা রকম চিত্রকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের টিকইল গ্রামের দেয়ালে দেয়ালে, আল্পনার টানে দেশ বিদেশ থেকে পর্যটকরা ছুটে যান টিকইল গ্রামে। এই গ্রামটি এখন পরিচিতি পেয়েছে আল্পনা গ্রাম হিসেবে।

স্থানীয়রা বিশ্বাস করেন অলপনায় শুধু মন কে প্রফুল্লই করে না এতে বাড়িতে পবিত্রতা আসে। বংশ পরম্পরায় বছরের পর বছর ধরে বাড়ির দেয়ালে দেয়ালে এ ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রেখেছেন গ্রামে ঝি-বৌয়েরা। বিভন্ন উৎসব, পার্বন, আনন্দময় উপলক্ষে পূর্বপুরুষের ঐতিহ্য রক্ষা করে চলেছেন।

আলপনার উপকরণ

একসময় আলপনা আঁকার জন্য রং এর সাথে খড়িমাটি, গিরিমাটি, তারপিন ব্যবহার করা হয়ে থাকলেও, বর্তমানে রং এর স্থায়িত্ব বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন রং এর সাথে গিরিমাটি, শুকনা বরই চুর্ণ আঠা, আমের পুরাতন আঁটির শাঁস চুর্ণ, মানকচু, কলাগাছের কস এক সঙ্গে মিশিয়ে কয়েকদিন ভিজিয়ে রেখে ঐ দ্রবন দিয়ে আল্পনা আঁকা হয়, তাতে আল্পনার স্থায়িত্ব বেড়ে যায়। আলপনা তাদের বাড়ীকে করেছে জলবায়ু সহিষ্ঞু।

ঢাকা থেকে কিভাবে যাবেন

সড়ক পথে যাওয়ার জন্য রাজধানীর কল্যানপুরে থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ যাওয়ার জন্য বিভিন্ন কোম্পানীর বাস পাওয়া যায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ৫০ টাকা বাস ভাড়ায় নাচোল যাওয়া যায়। নাচোল থেকে অটোরিক্সা, সিএনজি কিংবা ভ্যানে করে আলপনা গ্রামে যাওয়া আসার ভাড়া লাগবে ৪শত টাকা। গ্রামে ঢুকতেই চোখে পড়বে আলপনা আঁকা মাটির দেয়াল। রং তুলিতে আঁকা আলপনার মতোই সুন্দর আলপনা গ্রাম।

কোথায় থাকবেন

আলপনার গ্রাম ভ্রমনে গেলে আপনাকে চাপাইনবাবগঞ্জে থাকতে হবে, চাপাইনবাবগঞ্জ শহরে মোটামুটি মানের কিছু হোটেল আছে। সেখানে বিভিন্ন দামের থাকার হোটেল পেয়ে যাবেন, ৫০ টাকার মধ্যে এটাচ বাথরুম এবং টিভি সহ রুম ভাড়া পাওয়া যায়। আগে থেকে বুকিং দিয়ে রাখলে শিবগঞ্জ উপজেলার ডাকবাংলোতে থাকতে পারেন।

কোথায় খাবেন

চাপাইনবাবগঞ্জে খাবারের জন্য বিভিন্ন মানের হোটেল এবং রেস্টুরেন্ট আছে। চাপাইনবাবগঞ্জ গেলে শিবগঞ্জের চামচম অবশ্যই খেয়ে আসবেন। 

আধুনিকতার ছোঁয়ায় মাটির বাড়ি কমার সাথে সাথে আলপনাও কমতে শুরু করেছে। আলপনার শিল্পীরাও ইটের দেয়ালে আলপনা আঁকার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। গ্রামের সমস্ত বাড়ি ইটের হয়ে গেলেও মাটির দেয়ালেও টিকে থাকবে আলপনা গ্রামের ঐতিহ্য।

পরামর্শ

গ্রামের মানুষের সমস্যা হয় এমন কাজ করা থেকে বিরত থাকবেন। কারো ছবি তোলার আগে তার অনুমতি নিন। সবার সাথে ভালো ব্যবহার করুন।

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি