ঢাকা, বুধবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

সিগারেটের ধোঁয়ায় হাঁপানি হতে পারে শিশুরঃ গবেষণা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৪১, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, এ কথা ধূমপান করা ব্যক্তিসহ প্রায় সকলেরই জানা। তবুও উপেক্ষিত হয় সর্তকর্তা, কমছে না বললেই চলে ধূমপান করা ব্যক্তির সংখ্যা। এবার ধূমপান শুধু নিজেরই নয়, ক্ষতি করে পরবর্তী প্রজন্মেরও এমনই জানাল সাম্প্রতিক এক গবেষণা।

জানা গেছে, মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে ইউরোপিয়ান রেসপিরেটরি জার্নালে।
ধূমপান ক্যানসারের কারণ। তাই নানা সময়ে ধূমপানের কুপ্রভাব নিয়ে নানা সতর্কতার কথা শোনা যায় চিকিৎসকদের মুখে। ধূমপান ডেকে আনতে পারে ফুসফুসের সমস্যাও। এ বার নতুন আশঙ্কার কথাও শোনা গেল বিজ্ঞানীদের গলায়। 

মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের লেখা একটি গবেষণাপত্রটি জানাচ্ছে, ছোটবেলায় সিগারেটের ধোঁয়া নাকে ঢুকলে হাঁপানি হতে পারে শিশুরও।

১৯৬৮ সাল থেকে তাসমানিয়ায় শ্বসনতন্ত্রের রোগের উপর একটি সমীক্ষা চলছে। সেই সমীক্ষার তথ্য পর্যালোচনা করেছেন গবেষকরা। দেখা গিয়েছে, যাদের পিতা-মাতা ধূমপান করতেন, তাদের হাঁপানি বা অ্যাজমায় ভোগার আশঙ্কা প্রায় ৫৯ শতাংশ বেশি।

গবেষকরা বলছেন, “যারা ছোট থেকেই পরোক্ষ-ধূমপানের মধ্যে বড় হয়েছেন, তারা যদি নিজেরাও ধূমপান করেন, তবে আরও বেড়ে যায় এই আশঙ্কা। শৈশবে পরোক্ষ ধূমপান করার পর বড় হয়ে নিজে ধূমপান করলে তার সন্তানদের হাঁপানি হওয়ার আশঙ্কা প্রায় ৭২ শতাংশ বেড়ে যায়।”

সব মিলিয়ে গবেষকদের পরামর্শ, শুধু নিজের নয়, পরবর্তী প্রজন্মের কথা মাথায় রেখেও ধূমপান থেকে বিরত থাকা ভাল।

সূত্রঃ আনন্দবাজার অনলাইন
আরএমএ
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি