ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সিগারেট ফুসফুসের কী অবস্থা করে তা দেখুন ভিডিওতে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:২২ ২১ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১৩:২৫ ২১ নভেম্বর ২০১৯

চিনের এক ব্যক্তি ৫২ বছর বয়সে মারা গেছেন। মৃত্যুর আগে দেহদানের অঙ্গীকার করেছিলেন তিনি। সেই মতো মৃত্যুর পর তাঁর ফুসফুস প্রতিস্থাপনের জন্য বের করেন চিকিৎসকরা। আর তা করতে গিয়ে চিকিৎসকরা যা দেখেছেন তাতে আশ্চর্যই হয়েছেন। শুধু চিকিৎসকরাই নয়, এর ভিডিও যে দেখেছেন, সেই আশ্চর্য হয়েছেন! এ নিয়ে আলোচনাও চলছে নেটদুনিয়ায়।

ওই ব্যক্তির ফুসফুস বের করে চিকিৎসকরা দেখলেন, এই ফুসফুস আর প্রতিস্থাপনের যোগ্য নেই। এর কারণ বের করতে গিয়ে চিকিৎসকরা জানলেন ওই ব্যক্তি গত ৩০ বছর ধরে নিয়মিত এক প্যাকেট করে সিগারেট খেতেন। এই কারণে তাঁর ফুসফুস ভরে গেছে নিকোটিনের স্তরে এবং ফুসফুসের রং হয়েছে একেবারে কালো। 

ফুসফুসের এই দৃশ্য দেখে চিনের জিংয়ু প্রদেশের ইউক্সি পিপলস হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলেছেন, ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে ফুসফুসের সংক্রমণের কারণে।  মৃত ডোনারের এমন ফুসফুসের ছবি সামনে এনে চিকিৎসকরা বলেছেন, দেখুন সিগারেট কিভাবে ফুসফুস পুড়িয়ে ছারখার করে। এই ছবি তার জলন্ত এক উদাহরণ। এরপরও কী সিগারেট খাওয়া উচিত?

চিকিৎসক চেন জিয়াংগু জানিয়েছেন, দেহ দানের অঙ্গিকার থাকলেও এই ফুসফুস প্রতিস্থাপন একেবারেই অযোগ্য। অন্য কোন রোগীর দেহে তা বসানো যায় না। এরপরও যদি কোন রোগীর দেহে এই ফুসফুস প্রতিস্থাপন করা হয়, তবে তারও নানা রোগ হতে পারে। আমার দল এই ফুসফুসের প্রতিস্থাপন করতে অস্বীকার করেছে। 

চেন জিয়াংগু জোর দিয়ে বলেছেন, যদি কোন ব্যক্তি অতিরিক্ত ধূমপান করেন, তাহলে তাদের ফুসফুস কখনই অন্য কাউকে দান করা উচিত নয় এবং কারও শরীরে প্রতিস্থাপন করাও উচিত নয়।

এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে দেখা যাচ্ছে।  যা দেখে অনেকেই বলছেন, ‘ধূমপান বিরোধী শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞাপন এটি’।

দেখুন সেই ভিডিও- 

 

এএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি