ঢাকা, সোমবার   ০৩ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ২০ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

সোনায় মোড়ানো পাঁচ তারকা হোটেল!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:০৫ ৫ জুলাই ২০২০

ভিয়েতনামের সোনায় মোড়া হোটেলে। ছবি: সংগৃহীত

ভিয়েতনামের সোনায় মোড়া হোটেলে। ছবি: সংগৃহীত

অবাক হওয়ার মতো হলেও ঘটনাটি সত্যি। চকচকে সোনায় মোড়ানো হোটেলটি তৈরি করা হয়েছে ভিয়েতনামে। শুধু বাইরে নয়, হোটেলের দরজা, জানালা, বাথরুমের টয়লেট সিট থেকে শুরু করে লবি, ইনফিনিটি পুল, রুম এমনকী বাথরুমের শাওয়ারের মাথাটিও সোনায় মোড়া। দেশটির রাজধানীতে তৈরি হওয়া এই হোটেলটি বিশ্বের সর্বপ্রথম সোনায় মোড়া হোটেল।

ভিয়েতনামের রাজধানী হানোইতে গোল্ড প্লেটে তৈরি হওয়া হোটেলটির নাম ‘ডলস হানোই গোল্ডেন লেক’। এই হোটেলের নির্মাণ শুরু হয়েছিল ২০০৯ সালে। আর চলতি বছরের শেষের দিকে পুরোপুরি নির্মিত হয়ে যাবে তাক লাগানো এই স্থাপনাটি।

‘ডলস হানোই গোল্ডেন লেক’ হোটেলটি তৈরিতে খরচ হয়েছে ২০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় এই খরচের পরিমাণ প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকা। হোটেলের ইন্টিরিয়ার এবং এক্সটিরিয়ার দুই ক্ষেত্রেই ব্যবহৃত হয়েছে ২৪ ক্যারেট সোনা।

তবে সোনার পাতে পুরো হোটেল ছাড়াও হোটেলের টয়লেট সিট থেকে শুরু করে লবি, ইনফিনিটি পুল, রুম এমনকী বাথরুমের শাওয়ারও সোনা দিয়েই তৈরি করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, এই হোটেলে কোনও গেস্ট কফি খেতে চাইলে, তাকে সোনার কাপেই কফি পরিবেশন করা হবে। আবার খাবারও দেয়া হবে সোনার পাত্রে।

হোটেলটি হানোইয়ের গিয়াং ভো লেকের এক্কেবারে ধারেই তৈরি হয়েছে। সোনার এই হোটেলটি তৈরি করেছে ভিয়েতনামের প্রসিদ্ধ হোয়া বিন গ্রুপ। আর হোটেলটির ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে রয়েছে আমেরিকান সংস্থা উইনধাম হোটেল গ্রুপ।

হোটেলটির ভেতর ও বাইরে ৫০০০ বর্গমিটারের সিরামিক টাইলস বসানো রয়েছে। সম্পূর্ণ সোনা দিয়েই এই টাইলস নির্মিত। সোনার পাতে মোড়া হোটেল ভবনে রয়েছে মোট ২৫টি তলা। হোটেলের যাবতীয় সব আসবাবপত্রও সোনায় তৈরি।

'ডলস হানোই গোল্ডেন লেক' হোটেলে প্রতিদিনের জন্য রুম ভাড়া ২৫০ মার্কিন ডলার থেকে শুরু। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২২ হাজার টাকা। এই সোনায় মোড়ানো হোটেলে আপনি অ্যাপার্টমেন্টও ভাড়া নিতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে ৬৫০০ মার্কিন ডলার খরচ করতে হবে আপনাকে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় পাঁচ লাখ টাকার বেশি।

হোটেল কর্তৃপক্ষের ভাষ্য, হোটেলটি শুধু উচ্চবিত্তদের কথা চিন্তা করে তৈরি করা হয়নি। মধ্যবিত্তরাও হোটেলটিতে ঘুরতে পারবেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তো অবশ্যই, কর্তৃপক্ষ চাচ্ছেন সশরীরে মানুষ এই হোটেলে চেক ইন করুক।

হোটেলের নির্মাতা সংস্থা হোয়া বিন গ্রুপের চেয়ারম্যান এনগ্যুয়েন হু ডুয়োং বলছেন, আমাদের গ্রুপেরই একটি ফ্যাক্টরি রয়েছে যেখানে আমরা খুব সস্তায় নানা ধরনের সোনার জিনিসপত্র বানাই। সেই দিক থেকে দেখতে গেলে সোনায় মোড়া এই হোটেলে থাকার খরচ অনেকটাই কম।

এএইচ/ এমবি


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি