ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪

স্মৃতির জানালায়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:০৯, ৯ জুন ২০২৪ | আপডেট: ১৮:৩৩, ১০ জুন ২০২৪

স্মৃতি কখনো সুখের, আবার কখনো দুঃখের। তাই  স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে কেউ কেউ ফেলে আসা দিনগুলোতে চলে যান। তবে স্মৃতি ইতিহাসকে নতুন করে জন্ম দেয়, যা হারিয়ে যায় তা মনের গভীরের অতলান্তিক থেকে টেনে বের করা অনেকের পক্ষে আবার কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। সেই দিক থেকে সিনিয়র সাংবাদিক মনোয়ার হোসেন তার সিদ্ধহস্তে স্মৃতির ভেলা ভাসাতে পেরেছেন। 

তবে ভূমিকায় সাংবাদিক মনোয়ার হোসেন নিজেই  বলেছেন, এটি পুস্তক আকারে সংকলন। এর উপাদান হিসেবে যা স্থান পেয়েছে তা হলো, বিভিন্ন বিষয়ের ওপর লেখা। তবে ষাট দশকের উত্তালময় ছাত্ররাজনীতির যুগের চালচিত্র ইতিহাসের একটি ন্যূনতম অংশ বলা যায়, যা পাঠকের জন্য ইতিহাসের খেরো পাতা বা পাতা হিসেবে বিবেচনা করা যায়। যেমন ১৯৬৬ সালের ৬-দফা আন্দোলন। আবার ১৯৬৫ সালে পাক-ভারত যুদ্ধ। ঢাকা সেদিন মিছিলের শহর অধ্যায়ে (পৃষ্ঠা ৬৫) একজন পাঠকের নিশ্চয়ই উপলব্ধি করতে পারবেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনের পথে অন্যতম উপাদান তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের স্বায়ত্তশাসনের জন্য ১৯৬৬ সালের ৬-দফা । 

অতীত অনেক সময় নীরবে কথা বলে। ৮৪ পৃষ্ঠার ‘ডিগবাজার রোড বা নর্থব্রুক হল রোড’ অধ্যায়টি অনেক ক্ষেত্রে নষ্টালজিয়ায় আক্রান্ত করে ফেলতে পারে প্রবীণ পাঠকদের। একইভাবে ৬০ পৃষ্ঠার ‘বিউটি বোর্ডিং এন্ড রেষ্টুরেন্ট’ অধ্যায়টি। 
সাংবাদিক হিসেবে মনোয়ার হোসেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার সঙ্গে সাক্ষী। সে কথা মনে করিয়ে দেয় ৭৩ পৃষ্ঠার ‘অস্ত্র সমর্পণের এক টুকরো স্মৃতি’ অধ্যায়। 

ভ্রমণকাহিনী পাঠকের দৃষ্টি খুলে দেয়। ‘মাসাইমারা সাফারি পার্কে রাত্রিযাপন’ অধ্যায় অনেক পাঠককে আন্দোলিত করবে বলে মনে করি। একইভাবে ৪৮ পৃষ্ঠার ‘নীল নদের উৎসে’ অধ্যায়টি। আরও একটি অধ্যায় তা হলো, এক কঠোর মুখের রসিকতা। 

সিনিয়র সাংবাদিক হিসেবে মনোয়ার হোসেন একটি অধ্যায়ে লিখেছেন, ‘দেশে অর্থনৈতিক সাংবাদিকতার বিস্তার’। এই লেখাটি আরও বিস্তৃত হতে পারত। কারণ লেখক নিজের জীবদ্দশায় যে সময় পার করে এসেছেন, সে তুলনায় পাঠক আরও বেশি আশা করতেই পারে। 

খণ্ড খণ্ড স্মৃতি পাঠকদের যেমন আগ্রহ বাড়াবে, তেমনি বইটি নতুন প্রজন্মের সাংবাদিকদের জন্য বেশ কিছু অনুসরণীয় হতে পারে। বইয়ের প্রচ্ছদ দৃষ্টিনন্দন। ধন্যবাদ দেওয়ান আতিকুর রহমান। প্রান্ত প্রকাশন থেকে প্রকাশিত বইয়ের মূল্য রাখা হয়েছে ২৫০ টাকা। 

কেআই//
 


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি