ঢাকা, বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১, || শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮

হাতকড়ায় বেঁধেও ঠেকানো গেল না বিচ্ছেদ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:৫৬, ২১ জুন ২০২১ | আপডেট: ১৯:১৫, ১৯ জুলাই ২০২১

আলেক্সান্দর কুডলে ও ভিক্টোরিয়া পুস্তোভিতোভার দাম্পত্য জীবনে এত বেশি ঝগড়া হতো, যে এক পর্যায়ে গিয়ে ক্লান্ত হয়ে হাতকড়া দিয়ে নিজেদের বেঁধে ফেলেন তারা।

২০২১ সালের ভ্যালেন্টাইন ডে’তে হাতকড়ায় বেঁধে ফেলেন নিজেদের৷ আশা করেছিলেন যে এভাবে থাকলে কেউ কাউকে ছেড়ে থাকবেন না ও প্রথমে কষ্ট হলেও পরে মজাই হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ধরা জীবন
বাজার-হাট করা থেকে খাওয়া, ঘুম, এমনকি বাথরুমেও দুজনে একসাথে যেতেন। এই হাতকড়ায় বন্দি জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেছেন ইউক্রেনের এই দম্পতি।

হাতকড়া খুলে গেলো
টানা ১২৩দিন হাতকড়ায় বাঁধা থাকার পর ইউক্রেনের টেলিভিশন চ্যানেলের ক্যামেরার সামনে মুক্ত হন এই দুজন। সে মুহূর্তে উপস্থিত ছিলেন ইউক্রেনের রেকর্ড বুকের এক প্রতিনিধিও, যিনি জানান যে এমন কাজ অন্য কোনো দম্পতি এর আগে করেনি।

ফলাফল যা
হাতকড়ার সাথে সাথে ভেঙে গেলো এই দম্পতির সম্পর্কও। কুডলে ও পুস্তোভিতোভার মতে, দীর্ঘদিন এভাবে সংযুক্ত থাকার ফলে দুজনেই একে অপরের বিষয়ে বেশ কিছু অপ্রিয় সত্যের মুখোমুখি হয়েছেন, যা ভোলার নয়।

শুরুতে নারাজ ভিক্টোরিয়া
প্রাথমিকভাবে হাতকড়ার এই প্রস্তাব পছন্দ হয়নি ভিক্টোরিয়ার, জানান তিনি। হাতকড়া খুলে যাবার পর সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘‘আমার ধারণা এটা আমাদের জন্য একটা শিক্ষণীয় বিষয় হবে। শুধু আমরা কেন, ইউক্রেনসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা দম্পতিরা বার্তা পাবে যাতে করে তারা আমাদের ভুলটা না করে৷’’

হাতকড়ার কী হবে?
আলেক্সান্দর ও ভিক্টোরিয়ার ১২৩দিনের সঙ্গী এই হাতকড়াটিকে নিলামে বেচবেন তারা, জানান এই দম্পতি। নিলাম থেকে পাওয়া অর্থ তারা দান করবেন কোনো দাতব্য উদ্যোগে। সূত্র: ডয়েচে ভেলে

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি