ঢাকা, রবিবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ৬ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

’২৫ সালের মধ্যেই ৪১ শতাংশের হাতে পৌঁছাবে মোবাইল ইন্টারনেট

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:২৬ ৬ এপ্রিল ২০১৮ | আপডেট: ১৮:৪১ ৬ এপ্রিল ২০১৮

২০২৫ সালের মধ্যে বাংলাদেশের ৪১ শতাংশ গ্রাহকের হাতে মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে মোবাইল অপারেটরদের আন্তর্জাতিক সংগঠন জিএসএমএ। এ ছাড়া ওই গ্রাহকদের প্রায় অর্ধেকের কাছে ফোরজি সেবা পৌঁছে দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা দেয় সংগঠনটি।

গত ৪ এপ্রিল জিএসএমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৭ সালের মধ্যে দেশের ২১ শতাংশ গ্রাহকের হাতে মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। এ ছাড়া মোবাইল ফোন বাজারের জন্য বাংলাদেশকে উদীয়মান দেশ আখ্যা দিয়ে সংগঠনটির প্রতিবেদনে বলা হয়, এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে বাংলাদেশের অবস্থান পঞ্চম স্থানে রয়েছে। এ ছাড়া সারা বিশ্বে রয়েছে নবম অবস্থানে। গত এক দশকে বাংলাদেশে মোবাইল ফোন শিল্পের দ্রুত বিকাশের বিষয়টির ওপর গুরুত্ব দিয়ে জিএসএমএ এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে ব্রডব্যান্ড প্রযুক্তি ফোরজি ব্যবহারকারীদের সংখ্যা থ্রিজি ব্যবহারকারীদের সংখ্যাকে ছাড়িয়ে যাবে। উল্লেখ্য, ফোরজি ইন্টারনেট সেবার আধুনিক সংস্করণ হলো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা। ফোরজি সেবা গ্রামেগঞ্জে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হলে, তরুণ-তরুণীরা ইন্টারনেট কাজে লাগিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারবে বলে মনে করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

জিএসএমএ-এর হিসাবে বাংলাদেশে একক ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হিসেবে গ্রাহকের সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ২১ শতাংশ। তবে, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি)-র মতে, ২০১৭ সালের শেষে বাংলাদেশে মোট সক্রিয় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল আট কোটির বেশি। অর্থাৎ, দেশের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের কাছে ইন্টারনেট সংযোগ রয়েছে।

এমজে/

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি