ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৭:১৬:১৭

Ekushey Television Ltd.

২৬ কোটি টাকায় বিক্রি হলো একটি টুনা মাছ!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:৩৩ পিএম, ৫ জানুয়ারি ২০১৯ শনিবার

জাপানের একজন সুশি বিক্রেতা নতুন বছরে টোকিওর মাছ বাজারে নিলামে একটা দৈত্যাকৃতি টুনা মাছ ৩.১ মিলিয়ন ডলার (প্রায় ২৬ কোটি টাকা) মূল্যে কিনে নতুন রেকর্ড গড়েছেন। ২৭৮ কিলোগ্রামের ব্লুফিন বা নীল পাখনার টুনা মাছটি কিনে নিয়েছেন স্বঘোষিত টুনা সম্রাট কিয়োশি কিমুরা। খবর বিবিসি।

এই প্রজাতির মাছ এখন বিলুপ্তির পথে। কিমুরা নিজেই প্রচুর দাম দিয়ে মাছ কেনার যে রেকর্ড আগে গড়েছিলেন, এবার তার চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি দামে এই টুনা মাছটি কেনেন। এর আগে ২০১৩ সালে তিনি ১.৪ মিলিয়ন ডলার দিয়ে একটি মাছ কিনেছিলেন।

পাইকারী বিক্রেতা ও সুশি কোম্পানিগুলো নববর্ষে ভোর হওয়ারও আগে বাজারের সবচেয়ে ভালো মাছগুলো চড়া দামে কিনে থাকেন। নিলামের পর কিমুরা বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, আমি একটা ভালো টুনা কিনেছি।

কিয়োশি কিমুরা বলেন, যা ধারণা ছিল, দাম তার চেয়ে বেশি পড়েছে। কিন্তু, আমাদের ক্রেতারা এই চমৎকার টুনাটা খাবেন বলে আশা করছি। গত আট বছরের সাত বছরই নববর্ষের বাজারে নিলামে সবচেয়ে বেশি দাম হাঁকিয়েছেন কিমুরা।

বিবিসির রুপার্ট উইংফিল্ড জানান, সাধারণ দিনে এই টুনার দাম হতো ৬০ হাজার ডলার। কিন্তু, নববর্ষে বাজারে মর্যাদার একটা ব্যাপার ছিল। তাছাড়া এতে কিমুরার সুশি সাম্রাজ্যের ব্যাপক প্রচারণাও হয়েছে।

একই সঙ্গে টুনা মাছে বিরল একটি প্রজাতি হওয়ার কারণেও এর দাম বাড়ছে। সারা বিশ্বে ধরা নীল পাখনার টুনা মাছের বেশিরভাগই খায় জাপানের মানুষ। এখানে সুশির এই অত্যন্ত দামি এই উপাদানকে এর দামের কারণে ‘কালো হীরা’ বলে অভিহিত করে সুশী-প্রেমীরা।

আরকে//



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি