ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৪:৫০:৪৮

Ekushey Television Ltd.

৩৬ ঘণ্টায় ১১০ কিলোমিটার সাঁতার!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৪৮ এএম, ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার

মাথার ওপর জ্বলছে গনগনে সূর্য, কখনও বা বৃষ্টি। পার হচ্ছেন গ্রামের পর গ্রাম। সঙ্গে চলছে ইঞ্জিনচালিত বড় দুটি নৌকা ও দুটি ডিঙি। তাতে শতাধিক উৎসুক জনতা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণে রাখছেন তাকে। তিনি সাঁতার কাটছেন আর কাটছেন। এভাবেই গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত নদীপথে ৩৬ ঘণ্টায় ১১০ কিলোমিটার পাড়ি দিলেন নেত্রকোনার মদন উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য।

৬৭ বছর বয়সী এই সাঁতারু প্রতি ঘণ্টায় তিন কিলোমিটারের বেশি পথ সাঁতরাচ্ছেন। নিজস্ব রেকর্ড তৈরির লক্ষ্যেই তার এই সাঁতার।

জানা যায়, গত সোমবার সকাল পৌনে সাতটার দিকে শেরপুরের নালিতাবাড়ী ভোগাই নদের সেতুসংলগ্ন এলাকা থেকে ১৮৫ কিলোমিটার পাড়ি দেওয়ার লক্ষ্যে যাত্রা শুরু করেন তিনি। মদন উপজেলা নাগরিক কমিটি ও নালিতাবাড়ী পৌরসভা যৌথভাবে দূরপাল্লার এই সাঁতারের আয়োজন করে। নদীপথে ওই পথ আসতে তাকে নালিতাবাড়ী ছাড়াও ময়মনসিংহের তারাকান্দা, ফুলপুর, ধোবাউড়া, নেত্রকোনার পূর্বধলা, দুর্গাপুর, সদরসহ ছয়টি উপজেলা পার হতে হয়েছে। গন্তব্যে আসতে বাকি আছে আটপাড়া ও মদন উপজেলা।

আজ বুধবার দুপুরের দিকে গন্তব্যস্থল মদনের দেওয়ান বাজার ঘাট এলাকায় পৌঁছার কথা রয়েছে এই মুক্তিযোদ্ধার।

সাঁতারে নামার আগে ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য বলেন, আমি একটি রেকর্ড করতে চাই। এ ক্ষেত্রে বয়স কোনও বিষয় না। চেষ্টা থাকলে সবই সম্ভব।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিদ্যায় এমএসসি পাস করা ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য সাঁতার কেটে এ পর্যন্ত জাতীয় পর্যায়ে চারটি পুরস্কার পেয়েছেন। ভারতেও দূরপাল্লার সাঁতার প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছেন ক্ষিতীন্দ্র।

একে//



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি