ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪

বিশুদ্ধ পানির অপর নাম সুস্থ জীবন

শামসুন নাহার স্মৃতি

প্রকাশিত : ১৪:৫৬, ৩ জুলাই ২০২১ | আপডেট: ১৪:৫১, ৯ জুলাই ২০২১

বিশুদ্ধ পানি পানেই মিলবে সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবন

বিশুদ্ধ পানি পানেই মিলবে সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবন

পানির অপর নাম জীবন। এই কথাটা আমরা প্রায়ই শুনে থাকি। সুস্থ ও রোগ প্রতিরোধ করার জন্য মানুষের শরীরে প্রতিদিন পানির প্রয়োজন রয়েছে। খাবার ছাড়া জীবনধারণ করা কষ্টকর, কিন্তু পানি ছাড়া জীবন ধারণ করা অসম্ভব। মানুষসহ প্রতিটি প্রাণীর জীবনধারণের জন্য পানির প্রয়োজন অপরিহার্য। 

শরীর সুস্থ ও কর্মক্ষম রাখার জন্য সুষম খাদ্য তালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশুদ্ধ পানি রাখতে হবে। খাদ্যের ছয়টি উপাদান-এর মধ্যে একমাত্র পানিই হচ্ছে ক্যালোরি বিহীন খাদ্য উপাদান। যা আমাদের শরীরে ক্যালরির মাত্রা ও পুষ্টির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। তাই সুস্থ ও স্বাভাবিক কর্মময় জীবন যাপনের জন্য ক্যালরি বিহীন খাদ্য উপাদানটি পর্যাপ্ত পরিমাণে গ্রহণ করতে হবে প্রত্যেকের। শরীরে ইন্টারনাল অর্গানগুলোর সুস্থ ও সঠিক কর্ম সম্পাদনের জন্য প্রয়োজনীয় বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে।

প্রয়োজনীয় বিশুদ্ধ পানি পানির অভাবে অনেক রকমের শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। পানি পর্যাপ্ত পরিমাণে পান করলে আমাদের পিপাসা মেটানোর পাশাপাশি শরীরের পানিশূন্যতাও দূর হয়। ফলে শারীরিক ক্লান্তি দূর হয় এবং শক্তিও ফিরে আসে। পানি রক্ত ও রক্ত কণিকায় অক্সিজেন এবং অন্যান্য পুষ্টি উপাদান সরবরাহ করে। যার দরুন আমরা সুস্থ ও স্বাভাবিক কর্মময় জীবন যাপন করতে অভ্যস্ত হই।

শরীরের তাপমাত্রার ভারসাম্য রক্ষা করার ক্ষেত্রে পানির ভূমিকা অপরিসীম। পানি আমাদের হজমশক্তি বাড়ায়, ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয় এবং পরিপাকতন্ত্র সুস্থ থাকে। পানি শরীরের কিডনিতে পাথর হওয়া থেকেও প্রতিহত করে। পানি রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। 

কিন্তু শরীর পানিশূন্য হয়ে গেলে অনেক ধরণের শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। শরীরে ইলেক্ট্রোলাইট এর ইমব্যালেন্স হতে পারে। এতে করে তীব্র মাথাব্যথা হয়ে থাকে অনেকেরই। তাই তীব্র জ্বরের সময় পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশুদ্ধ পানি পান করা উচিৎ।
 
যারা শারীরিক পরিশ্রম বেশী করে থাকেন, শারীরিক ব্যায়াম, খেলাধুলা করে থাকেন- তাদের ঘাম হয় বেশি। এতে করে শরীর থেকে পানি ও লবণ বের হয়ে যায়, এই জন্য তাদের সুষম খাদ্য তালিকার পাশাপাশি পানি পান করতে হবে বেশি পরিমাণে। তাহলে শরীরে পানিশূন্যতা দূর হয়ে শরীরের ক্লান্তি দূর হবে এবং সুস্থ ও কর্মক্ষম জীবন বজায় থাকবে।

একজন প্রাপ্তবয়স্ক সুস্থ মানুষের পানির চাহিদা হচ্ছে ৮ থেকে ১০ গ্লাস বা ২ থেকে ৩ লিটার। তবে প্রয়োজন ভেদে কমবেশি হতে পারে। তবে দৈনিক ৮ গ্লাসের নিচে পানি পান করা উচিৎ নয়। আর সে পানি হতে হবে অবশ্যই বিশুদ্ধ। পানি বিশুদ্ধ না হলে পানি বাহিত বিভিন্ন ধরণের রোগ দেখা দিতে পারে শরীরে।

তাই সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনযাপনের জন্য আমাদের প্রত্যেকের চাহিদামত বিশুদ্ধ পানি পান করার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। 

লেখক- ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশনিষ্ট এন্ড ডায়েটিশিয়ান, উত্তরা ক্রিসেন্ট হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, উত্তরা, ঢাকা।

এনএস//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি