ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

অবশেষে মিলেছে মাথা কাটা শিশু ও ঘাতকের পরিচয়

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২১:০৫ ১৮ জুলাই ২০১৯

নেত্রকোনায় শিশুর গলা কাটা মস্তক নিয়ে যাওয়ার সময় গণপিটুনিতে এক যুবক নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে শহরের নিউ টাউন পুকুরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দেহহীন শিশুরটির নাম সজিব (৮)। আর নিহত যুবকের নাম রবিন (২২)। সে উত্তর কাটলীর রিক্সাচালক আলকাছ মিয়ার পুত্র।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এক অজ্ঞাত যুবক বারহাট্টা রোডস্থ শ্রমিক ইউনিয়নের সামনে মেথর পট্টিতে মদ পান করার পর মাতলামি করতে থাকে। এ সময় তার ব্যাগ থেকে একটি শিশুর গলাকাটা মস্তক (মাথা) মাটিতে পড়ে গেলে স্থানীয় জনতা তা দেখে ফেলে। 

মুহূর্তেই খবরটি আশপাশে ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত শত শত জনতা ওই যুবককে ধাওয়া করে নিউটাউন পঁচা পুকুর (অনন্ত পুকুর) পাড়ে তাকে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। 

খবর পেয়ে পুলিশ পুকুর পাড় থেকে শিশুর গলা কাটা মস্তক এবং অজ্ঞাত যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ খবর সারা শহরে ছড়িয়ে গেলে ছাত্র শিক্ষক অভিভাবক মহলে চরম আতংক ছড়িয়ে পড়ে। উৎসুক জনতা শিশুর গলাকাটা মস্তক এবং শিশু হত্যাকারীর লাশ দেখার জন্য পুকুর পাড়ে ভীড় জমায়। এ সময় উৎসুক জনতার ভীড় সামাল দিতে পুলিশকে রীতিমত গলদঘর্ম হতে হয়।
  
এদিকে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে গলা কাটা শিশুর ছবি মুহূর্তে ভাইরাল হলে এবং চাঞ্চল্যকর এ খবর পেয়ে কাটলী এলাকার রিক্সা চালক রইস উদ্দিন থানায় গিয়ে জানায়, গলা কাটা শিশুটি তার পুত্র সজিবের। তার বয়স ৮ বছর। 

সে আরও জানায়, আজ (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টার দিকে শিশু পুত্র সজিব তার কাছে আইসক্রীম খাবার জন্য ৫টা টাকা চায়। কিন্তু হাতে টাকা না থাকায় তিনি সে সময় সজিবকে আইসক্রীম খাওয়ার টাকা দিতে পারেনি। 

এ ব্যাপারে নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুল আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গলা কাটা শিশু এবং গণপিটুনিতে নিহত যুবকের পরিচয় পাওয়া গেছে। শিশুটির নাম সজিব (৮)। আর গণপিটুনিতে নিহত যুবকের নাম রবিন (২২)। সে উত্তর কাটলীর রিক্সাচালক আলকাছ মিয়ার পুত্র। 

এলাকাবাসী জানায়, সে মাদকাসক্ত। শিশুটির বাকী দেহ উত্তর কাটলীর একটি নির্মাণাধীন তিন তলার বাসা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কি কারণে শিশুটিকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে, তা এখনও জানা না গেলেও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
 
এনএস/এসি
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি