ঢাকা, শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ৬ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

আটাব নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:০৬ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১৬:৩০ ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশের (আটাব) কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষ, চলছে গণনা। 

আজ শনিবার ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে, চট্টগ্রামে পূর্ব নাসিরাবাদ ষোলশহর ২ নম্বর গেটের জিননুরাইন কনভেনশন সেন্টারে এবং সিলেটের জিন্দাবাজার গ্যালারিয়া শপিং কমপ্লেক্সে আটাব আঞ্চলিক কার্যালয়ে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এক যোগে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনটির আড়াই হাজারেরও বেশি সদস্য নির্বাচনে ২০১৯-২১ সেশনের জন্য ২৯ জন কার্যনির্বাহী সদস্যকে নির্বাচিত করবেন। এর মধ্যে ঢাকায় ১৭ জন এবং চট্টগ্রাম ও সিলেটের ৬ জন করে নির্বাচন করবেন। আটাব সম্মিলিত ফোরাম ও আটাব গণতান্ত্রিক ঐক্যফ্রন্ট নামে দু’টি প্যানেলে মোট ৫৮ জন সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এ নির্বাচনে। 

মনসুর আহমদ কালামের নেতৃত্বাধীন আটাব সম্মিলিত ফোরামের প্রধান সমন্বয়কারি হাব সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম এবং জিন্নুর আহমেদ চৌধুরী দিপুর নেতৃত্বাধীন আটাব গণতান্ত্রিক ঐক্যফ্রন্টের প্রধান সমন্বয়কারি আটাবের বিদায়ী সভাপতি এস এন মঞ্জুর মোর্শেদ মাহবুব।

নির্বাচনে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হতে পারে বলে আভাস পাওয়া গেছে। আটাব সদস্যের  তিন ভাগের এক ভাগ হাবেরও সদস্য। হাবের বর্তমান সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম। আটাবের বিদায়ী সভাপতি টানা তিন মেয়াদে সততা ও বিশ্বস্ততার সাথে আটাবের দায়িত্ব পালন করার কারণে আটাব সদস্যদের মধ্যে তার প্রচুর জনপ্রিয়তা রয়েছে। দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্যানেলে এই দুইজন নেতৃত্ব দেয়ার কারণে এই নির্বাচন অনেকটাই দুইজনের মর্যাদা রক্ষার লড়াইয়ে পরিণত হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট অনেকে জানিয়েছেন। 

নির্বাচন কমিশনার একে এম বারি বলেন, অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহন হচ্ছে।আমরা প্রত্যাশা করি যারা জয়লাভ করবেন তারা ট্রেডের জন্য জন্য কাজ করবেন, ট্রেডের কিছু সমস্যা রয়েছে সেগুলো তারা সমাধান করবে। 

এদিকে সম্মিলিত ফোরামের মনসুর আহমেদ কালামের অভিযোগ ও আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত বুধবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এই নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেছিল। কিন্তু পরদিন উচ্চ আদালত এই স্থগিতাদেশকে স্থগিত করার পর গত বৃহস্পতিবার রাতে আটাব নির্বাচন কমিশন আজ শনিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা জানায়। 

নির্বাচন অনুষ্ঠানের মেয়াদ অতিবাহিত হওয়া এবং এ ব্যাপারে মন্ত্রণালয় থেকে সময় বৃদ্ধি না হওয়ার পরও বর্তমান কমিটির অধীনে নির্বাচনকে প্রভাবিত করা হচ্ছে এমন অভিযোগে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এই স্থগিতাদেশ দিয়েছিল। তিন দিনের মধ্যে অভিযোগের ব্যাখ্যা প্রদান এবং অভিযোগ নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত নির্বাচন স্থগিত রাখার জন্য আটাব নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান, আটাব নির্বাচন আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং আটাব সভাপতির প্রতি নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল।

(পরবর্তীতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশদাতা কে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয় ) এরপর প্রতিদ্বন্দ্বী দু’টি প্যানেলকে নির্বাচনী কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য বলার কথা জানিয়েছিলেন সংগঠনটির নির্বাচনী বোর্ডের চেযারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী। ওইদিনই তিনি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে জবাব দেয়ার কথাও জানান।

তবে বৃহস্পতিবার এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করা হলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ওই আদেশ স্থগিত করা হয় এবং আটাবের নির্বাচন কমিশন রাতে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি অবহিত করে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা জানায়।

এসি/এমএস

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি