ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

এবার মিথিলার পাশে সৃজিৎ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২৩:১৭ ৭ নভেম্বর ২০১৯

কলকাতার পরিচালক সৃজিৎ মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়েছেন অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছু দিন ধরে। এমনকী, খুব শিগগিরই দুজনে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন বলেও কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু এরই মাঝে বিতর্কের মুখে পড়েন মিথিলা।

পরিচালক ইফতেখর আহমেদ ফাহমির সঙ্গে বেশ কিছু ব্যক্তিগত ঘনিষ্ঠ ছবি ইন্টারনেটে ফাঁস হয়ে যায়। এই ঘটনায় কড়া প্রতিক্রিয়া জানান সৃজিৎও। এই প্রসঙ্গে এক সংবাদমাধ্যমের কাছে সৃজিৎ বলেন, ‘ব্যক্তিগত পরিসরে হস্তক্ষেপ করা একটি অপরাধমূলক কাজ। এটা যেই করে থাকুক তার কড়া শাস্তি হওয়া উচিত। মিথিলা যে ভাবে ব্যাপারটি সামলেছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। ফেসবুকে ও যে পোস্টটি করেছে একদম ঠিক। ওর জন্য আরও গর্ববোধ হবে’।

মিথিলা সোশ‌্যাল মিডিয়ায় লেখেন, আমি এখানে ব্যাখ্যা করব না যে কী হয়েছে। আমার কিছু ব্যক্তিগত ছবি, যার মধ্যে কয়েকটি আসল আর কয়েকটি তৈরি করা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করতেই এই কাজ করেছে কয়েকজন অপরাধী। সেই বিষয়টাই আমি পরিষ্কার করব। ২০১৭-২০১৮ সালে আমার তখনকার প্রেমিকের (ফাহমি) সঙ্গে আমি ছবিগুলি শেয়ার করি। ওর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাকড হয়েছে আর ইচ্ছে করে ওই ছবিগুলি ফাঁস করা হয়েছে। আমরা সেই সময়ে সম্পর্কে ছিলাম। যখন দুটো মানুষ সম্পর্কে থাকেন, তাঁদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত তৈরি হয়। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছবি দেওয়া নেওয়া হয়। ছবির প্রাইভেসি বজায় না রাখতে পারার দায় আমি নিচ্ছি।

মিথিলা ওই পোস্টে আরও বলেন, আমি আমার ছবিগুলি এভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস হয়েছে বলে মোটেই লজ্জিত নই। কিন্তু আমার দেশের লোকজন যে ভাবে আমার ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি ছড়িয়ে দিয়ে আমার ভাবমূর্তিকে ধর্ষণ করেছে, ছবিগুলি বিক্রি করছে, খবর করছে তাতে আমি লজ্জিত। আরও বড় ব্যাপার কিছু নিউজ পোর্টাল আমার অনুমতি না নিয়ে এই খবর করেছে। আমি কোনও কথাই বলিনি। অথচ আমার কোট ব্যবহার করেছে তারা। আমার সত্যিই রাগ হয় যখন দেখি রাস্তা ঘাটে বাড়িতে, ভার্চুয়াল স্পেসে মহিলাদের যৌন হেনস্থা করা হচ্ছে।

মিথিলা সেই পোস্টে বিস্ফোরক হয়ে বলেন, আমি বিশ্বাস করি আমার সম্মান আমার শরীরে, অন্তর্বাসে বা ব্যক্তিগত ছবিতে নেই। আমি এতদিনে যা অর্জন করেছি তা আমার কাজ, সৃজনশীলতা ও শিক্ষার মাধ্যমে। এইগুলি ওই অপরাধীরা কখনওই নষ্ট করতে পারবে না।

মিথিলা যে ভাবে বিষয়টি সামাল দিয়েছেন, তার প্রশংসা করছেন অনেকেই। এই প্রসঙ্গে মিথিলা লিখেছেন, আমি গত ২৪ ঘণ্টা চুপ থেকে শুধু শক্তি অর্জন করেছি। এই ঘটনা আমায় দুর্বল করেনি। বরং আরও শক্ত করেছে।

মিথিলা এও জানান, সাইবার ক্রাইম দফতরে তিনি এই মর্মে অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি স্পষ্ট জানান, এই কাজ যারা করেছে তাদের খুঁজে বের করে যথাযথ শাস্তি দেবেন।

মিথিলার এই পোস্ট সৃজিৎও শেয়ার করেন। সৃজিৎ ক্যাপশনে লেখেন, তোমায় কুর্ণিশ বাঘিনী। প্রতিদিন তুমি আমায় গর্বিত করছ। সৃজিৎও যে ভাবে মিথিলার সমর্থনে পাশে দাঁড়িয়েছেন, তারও প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরা।

এসি

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি