ঢাকা, শুক্রবার   ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

গভীর রাতে জেগে ওঠা কাঞ্চনজঙ্ঘার দৃশ্যে বিমোহিত (ভিডিও)

বিকুল চক্রবর্তী, দার্জিলিং ঘুরে এসে

প্রকাশিত : ১২:২৩, ১২ জানুয়ারি ২০২৪

শীতে দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে দেখা যায় বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পর্বতশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘাকে। তবে এটি বেশি স্পষ্ট ভারতের দার্জিলিংয়ের টাইগারহিলে। সারা বছরই তাই সেখানে ভিড় জমে পর্যটকদের। 

গভীর রাতে জেগে ওঠে ভারতের উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘা। চূড়াগুলো জ্বলতে থাকে সোনার মতো। এই মাহেন্দ্রক্ষণের সাক্ষী হতে রাত সাড়ে তিনটায় দার্জিলিংয়ের টাইগারহিলে ছুটে চলেন দর্শনার্থীরা। সূর্যোদয়ের প্রথম কিরণে কাঞ্চনজঙ্ঘার অপরুপ দৃশ্যে হন বিমোহিত। 

ভারতের উত্তর সিকিম জেলা ও নেপাল সীমান্তে কাঞ্চনজঙ্ঘার অবস্থান, অন্য শৃঙ্গগুলো নেপালের তাপ্লেজুং জেলায়। উচ্চতা ২৬ হাজার ফুটের বেশি। প্রায় ১৩৫ কিলোমিটার দূরের দার্জিলিংয়ের টাইগারহিলে দাঁড়ালেও তাই চোখে স্পষ্টভাবে ধরা দেয় কাঞ্চনজঙ্ঘা।

পাঁচটি পর্বতচূড়ার কাঞ্চনজঙ্ঘা পরিচিত ‘তুষারের পাঁচটি ঐশ্বর্য’ নামে। পবিত্রজ্ঞানে পূজা করেন সিকিম ও দার্জিলিংয়ের স্থানীয়রা। কাঞ্চনজঙ্ঘার শৃঙ্গের ঠিক মাথায় তাই পা রাখেন না কোনো অভিযাত্রীই। তাদের ‘সামিট’ও চিহ্নিত শৃঙ্গের কয়েকফুট নিচে। 

মেঘের আলিঙ্গনে ভিন্ন ভিন্ন রুপ ধারণ করা কাঞ্চনজঙ্ঘার দর্শন পাওয়াই শুধু নয়। অপরূপ প্রকৃতির চাদরে ঢাকা পুরো দার্জিলিং শহরটাই। পায়ের নিচে ভেসে বেড়ায় সাদা মেঘের ভেলা। রয়েছে পৃথিবীর সর্বোচ্চ উঁচু টিলায় স্থাপিত ঘুমস্টেশন আর দৃষ্টিনন্দন চাবাগানও।

দার্জিলিং দর্শনে তাই বছরজুড়েই ভিড় জমান হাজারো দর্শনার্থীর।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি