ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১১:৩৪:০০

Ekushey Television Ltd.

চৌগ্রাম জমিদার বাড়ি (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:১১ এএম, ৩০ মার্চ ২০১৮ শুক্রবার

 নাটোরের চৌগ্রাম জমিদার বাড়ি। প্রায় তিনশো বছরের পুরনো স্থাপত্যের অন্যতম নিদর্শন এটি। তবে, অবৈধ দখল আর সংরক্ষণের অভাবে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে এই জমিদার বাড়ি। বাড়িটি দখল মুক্ত করে সংরক্ষণের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

১৭২০ সালে জমিদার কৃষ্ণকান্তসিংড়ার চৌগ্রামে প্রায় ৪৮ একর জমির ওপর ৯টি পুকুরসহ এই জমিদার বাড়িটি নির্মাণ করেন। তার বাবা রসিক রায়ের ছিল দুই ছেলে- কৃষ্ণকান্ত ও রামকান্ত। রাজা রামজীবন তাদের মধ্যে রামকান্তকে দত্তক নেন। পরে রামজীবন কৃতজ্ঞতা স্বরুপ নাটোরের সিংড়ায় চৌগ্রাম এবং রংপুরের ইসলামাবাদ পরগণা রসিক রায়কে দান করেন।

জমিদার রসিক রায় মারা যাওয়ার পর কৃষ্ণকান্ত ১৭২০ সালে চৌগ্রামে এই বাড়ি নির্মাণ করেন। তার জমিদারি পরগণার আয়তন ছিল ২৯ হাজার ৪শ’ ৮৭ একর। জমিদার বাড়ির প্রবেশ পথেই রয়েছে মূল ফটক। যা এখন জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। জমিদার বাড়ির জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন স্থাপনা।

কৃষ্ণকান্তের মৃত্যুর পর তার ছেলে রুদ্রকান্ত জমিদারি পান। নিঃসন্তান রুদ্রকান্ত দত্তক নেন রমণীকান্তকে। রমণী কান্ত চৌগ্রামে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাতব্য চিকিৎসালয় প্রতিষ্ঠা করেন। জমিদারি প্রথা বিলোপের পর সবাই দেশ ত্যাগ করলে বাড়িটি অরক্ষিত হয়ে পড়ে।

এখন বাড়িটি সংস্কার করে পর্যটন কেন্দ্র করার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় প্রতিনিধিরা। এছাড়াও দ্রুত বাড়িটি অবৈধ দখলমুক্ত করার দাবি এলাকাবাসীর।

একে//এসএইচ/

এ বিভাগে আপনাদের মতামত ও লেখা পাঠান travel@ekushey-tv.com.



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি