ঢাকা, সোমবার   ০১ জুন ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ১৮ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

ঠাকুরগাঁওয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন একই পরিবারের ৫ জন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০০:০১ ৩১ মার্চ ২০২০

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের নদীপাহাড় গ্রামের একই পরিবারের ৫ জন সদস্যকে রংপুর থেকে ফেরত পাঠিয়েছে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগ।  

রবিবার রাতে ঠাকুরগাঁওয়ে পৌঁছালে তাদের রাখা হয় ঠাকুরগাঁও সদর আধুনিক হাসপাতালের তত্বাবধানে পরিচালিত স্থানীয় ভকেশনাল ইন্সটিটিউট কেন্দ্রে স্থাপিত আইসোলেশন ওয়ার্ডে। 

এ ব্যাপারে সোমবার ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার ও আধুনিক সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ নাদিরুল আজিজ চপল জানান, তারা প্রত্যেকেই আগের চেয়ে অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছে তাই তাদের ফেরত পাঠিয়েছে এবং রংপুরে আইইডিসিআর এর সদস্যরা তাদের শরীরের সংক্রমনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় প্রেরণ করেছে। ঢাকা থেকে সেই রিপোর্ট আসার পর তাদের বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা কি হবে তা বলা যাবে। বর্তমানে হাসপাতাল থেকে তাদের সকল সেবা প্রদান করা হচ্ছে।
 
উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁওয়ের নদীপাহাড় গ্রামের এক শিশুসহ একই পরিবারের পাঁচজন জ্বর, পাতলা পায়খানা, সর্দি ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ তাদেরকে গত শনিবার সন্ধ্যায় পরীক্ষা নিরীক্ষার পর অত্যন্ত সতর্কতার সাথে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছিল। 

এর আগে গত শুক্রবার রাতে শরীরে জ্বর থাকাবস্থায় ঢাকা থেকে ট্রেন যোগে রওনা দিয়ে শনিবার সকালে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নে তার নিজ বাসায় আসেন ওই পরিবারের কর্মক্ষম এক ব্যক্তি। বাসায় আসার পর তার শরীরে জ্বরের তীব্রতা আরও বেড়ে যায়। এর সঙ্গে শ্বাসকষ্ট ও পাতলা পায়খানা শুরু হয়। একই সমস্যা দেখা দেয় তার স্ত্রী ও ছোট্ট শিশু সন্তানটির মাঝেও।

অসুস্থ ব্যক্তির বরাতে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ জানান, ঢাকা থেকে ফেরার পূর্বে সেখানে লোকজনের সাথে মাদারীপুর একটি পিকনিকে অংশ নিয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। পিকনিকে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের মধ্যে কারো সংস্পর্শে আসার পরই তিনি জ্বরে আক্রান্ত হন বলে ধারণা করা হয়।

কেআই/এসি

 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি