ঢাকা, সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, || ফাল্গুন ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

তুহিনের হত্যাকারীদের আইনি সহায়তা দেবে না আইনজীবীরা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:১৫ ১৭ অক্টোবর ২০১৯

সুনামগঞ্জের আলোচিত পাঁচ বছরের শিশু তুহিন হত্যকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের পক্ষে আইনি সহায়তা না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন স্থানীয় আইনজীবীরা। নৃশংস এ হত্যকাণ্ড কেউই মেনে নিতে পারছেন না। 

গত রোববার (১৩ অক্টোবর) রাতে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় শিশু তুহিনকে হত্যা করে গাছের সঙ্গে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়। পরদিন সোমবার ভোরে গাছের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তুহিনের পেটে দুটি ধারালো ছুরি বিদ্ধ ছিল। তার পুরো শরীর রক্তাক্ত, কান ও লিঙ্গ কর্তন অবস্থায় ছিল। তুহিন ওই গ্রামের আব্দুল বাছিরের ছেলে। সবচেয়ে দুঃখজনক বিষয় ছিল শিশুটিকে জবাই করা হয় তার বাবার কোলেই।

এ ঘটনায় তুহিনের মা ১০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় তুহিনের বাবা, চাচা, চাচী ও চাচাতো বোনকে আটক করে পুলিশ। পরে তুহিনের বাবা ও চাচা নাছির উদ্দিনের পুলিশের কাছে ১৬৪  ধারায় দেয়া জবানবন্দিতে বেরিয়ে আসে লোমহর্ষক সব কাহিনী। নিজের সন্তানের ওপর কিভাবে এতটা পাশবিক হতে পারেন একজন বাবা, তা বোধ করতে পারছেন না কেউই। 

ফলে নিজেদের দায়বদ্ধতা থেকে এ মামলায় আসামিদের পক্ষে কোনো আদালতে লড়বেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন স্থানীয় আইনজীবীরা।

ঘটনার দিন তুহিনকে ঘুমন্ত অবস্থায় তার বাবা আব্দুল বাছির ঘর থেকে বের করে বাইরে নিয়ে যান। এরপর বাবার কোলেই গলা কেটে হত্যা করেন চাচা ও চাচাতো ভাই। পরে তুহিনের পেটে দুটি ছুরি বিদ্ধ করে গাছে ঝুলিয়ে দেন তারা। তুহিনকে হত্যায় বাবার সঙ্গে অংশ নেন চাচা নাছির উদ্দিন ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ার।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জের আইনজীবী স্বপন কুমার দাস গণমাধ্যমকে বলেন, শিশু তুহিন হত্যাকাণ্ড খুবই মর্মান্তিক এবং ভয়ঙ্কর। বাবার কোলে সন্তানকে জবাই করে হত্যার এমন নৃশংস ঘটনা কোথাও ঘটেছে বলে আমার জানা নেই। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি এই হত্যাকাণ্ডে যারা জড়িত তাদের পক্ষে আদালতে দাঁড়াবো না।

এদিকে, তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরকে আইনগত সহায়তা দেওয়া হবে না জানিয়ে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. চাঁন মিয়া বলেন, এই ঘটনায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই আমরা। এমন ঘটনা যেন আর না ঘটে সেজন্য আমাদের সমাজকে পরিবর্তন করতে হবে। সমাজে যেসব সংঘাত, হিংসা এবং প্রতিপক্ষের প্রতি প্রতিহিংসা চলছে এসব থেকে আমাদের সরে আসতে হবে। তাই, আইনজীবীদের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, তুহিন হত্যাকাণ্ডে যারা জড়িত তাদের পক্ষে কোনো আইনজীবী লড়বে না।

আলোচিত এ মামলায় এখন পর্যন্ত ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রতিপক্ষতে ফাঁসাতেই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বলে আসামিদের স্বজনরা জানিয়েছেন। 

আই/
 

New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি