ঢাকা, সোমবার   ২৫ মে ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

দরিদ্রদের মাঝে সাতক্ষীরা জেলা সমিতির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:৩৫ ২ এপ্রিল ২০২০ | আপডেট: ১৭:৩৭ ২ এপ্রিল ২০২০

দরিদ্রদের মাঝে সাতক্ষীরা জেলা সমিতির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

দরিদ্রদের মাঝে সাতক্ষীরা জেলা সমিতির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

দেশে চলমান করোনা সংকটে দুর্বিপাকে পড়েছেন দরিদ্র জনগণ। কাজ বন্ধ তো চুলাও বন্ধ। এমন অবস্থায় সাতক্ষীরার ৮টি থানার প্রায় ১৪ শত দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে ঢাকাস্থ ‘সাতক্ষীরা জেলা সমিতি’। 

সম্প্রতি প্রতিটি পরিবারকে ১০ দিনের এ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য দেয়া হয়। চলতি মাসের মাঝামাঝিতে দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ২ হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানান সংগঠনটির নেতারা। 

খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সংগঠনের সভাপতি এম খলিলুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক সামছুল আলম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এসএম আমজাদ হোসেন, স্থানীয় ব্যবসায়ী আব্দুস সবুরসহ বিশিষ্টজনেরা। জেলা সমিতির আর্থিক ও সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছেন।   

এর আগে গেল মাসে দেশে করোনা শনাক্ত হলে সাতক্ষীরা জেলা সমিতির পক্ষ থেকে জেলার সব থাকায় ঘরবন্দি মানুষদেরকে মাস্ক, হ্যান্ডস্যানিটাইজার, সাবান ও সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়। 

সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহেমেদ রবি বলেন, ‘বিশ্ব এখন ক্রান্তিকাল পার করছে। আমরাও এর থেকে বাইরে নই। আমাদের সামনে যে চ্যালেঞ্জ- কর্মবিমুখ মানুষের খাদ্যের অভাব, নিত্য পণ্যের অভাব এবং সকলকে ঘরে থাকার ব্যবস্থা করা এগুলো বাস্তবায়নে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।’সাতক্ষীরা জেলা সমিতি সভাপতি এম খলিলুল্লাহ বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বিপদ গ্রস্থ হলো দৈনিক খেটে খাওয়া মানুষ। তাদেরকে সহযোগিতা করা খুবই জরুরি। খাদ্য সামগ্রীসহ প্রয়োজনীয় নিত্যপণ্য যদি আমরা সরবারহ না করতে পারি তাহলে তাদেরকে আমরা ঘরে রাখতে পারবো না। সেটা না পারলে ঝুকি আমাদের সকলের।’ সমাজের বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি। (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। 

এমএস/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি