ঢাকা, রবিবার   ০৭ জুন ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ২৪ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে শামীম, খালেদকে আনা হবে সোমবার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৪৬ ৩ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১৫:৪৮ ৩ নভেম্বর ২০১৯

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকার টেন্ডার গডফাদার জি কে শামীমকে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র কার্যালয়ে নেওয়া হয়েছে। 

আজ রোববার সকালে শামীমকে কেরানীগঞ্জের কারাগার থেকে দুদকের কার্যালয়ে নিয়ে আসে দুদকের একটি দল।

এদিকে আগামীকাল সোমকার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুদকে আনা হবে।

জানা যায়, ১৮ সেপ্টেম্বর খালেদ ও ২০ সেপ্টেম্বর শামীমকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। ২১ অক্টোবর তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। শামীমের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক মো. সালাউদ্দিন। তার বিরুদ্ধে ২৯৭ কোটি ৯ লাখ টাকা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে। খালেদের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। তার বিরুদ্ধে ৫ কোটি ৫৮ লাখ টাকা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

দুদক সূত্রে জানা যায়, অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় ঠিকাদার এস এম গোলাম কিবরিয়া (জি কে) শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে দুদক।

দুদকের মুখপাত্র প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘হাতকড়া পরিয়ে শামীমকে কেরাণীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মাইক্রোবাস যোগে সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে আনা হয়। দুপুর ২টা থেকে পরিচালক ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে একটি দল তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শামীমকে রমনা থানায় নিয়ে রাখা হবে। হেফাজতের বাকি ছয়দিন রমনা থানা থেকে দুদক কার্যালয়ে এনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’

এর আগে গত ২৭ অক্টোবর দুদকের এক আবেদেনের প্রেক্ষিতে ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক মো. আল মামুন সাতদিন হেফাজতে রেখে শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন।

যুবলীগ ঢাকা দক্ষিণের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ এবং যুবলীগ নেতা পরিচয়ে ঠিকাদারি ব্যবসা করে আসা জি কে শামীমকে ওইদিন আলাদাভাবে আদালতে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ড চেয়েছিল দুদক।
এমএস/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি