ঢাকা, ২০১৯-০৫-২৭ ১৭:৩৩:০৭, সোমবার

Ekushey Television Ltd.

দ্বিতীয় মেয়াদের এক বছর পূর্ণ হলো আবদুল হামিদের

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৪৯ এএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯ বুধবার | আপডেট: ০১:৪২ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯ বুধবার

দেশে প্রথমবারের মতো কোনও রাষ্ট্রপতি টানা দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব পালন করছেন। রাষ্ট্রপতি হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে আবদুল হামিদের এক বছর পূর্ণ হচ্ছে আজ বুধবার। গত বছরের ২৪ এপ্রিল দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ নেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি হিসেবে বঙ্গভবনে আবদুল হামিদের ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে আজ। এই দ্বিতীয় মেয়াদের পুরোটা পার করতে পারলে তিনিই হবেন সবচেয়ে বেশি সময় রাষ্ট্রপতির পদে অধিষ্ঠিত ব্যক্তি।

স্বচ্ছ ও নির্মোহ রাজনীতির প্রতীক আবদুল হামিদ দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে আদর্শচ্যুত হননি কখনই। পরাভূত হননি ক্ষমতার লোভ কিংবা স্পৃহার কাছে। প্রতিহিংসা কিংবা প্রতিশোধপরায়ণতায় কখনও নিজেকে বা নিজের দলকে লিপ্ত করেননি রাজনৈতিক সংঘাতে। এই স্বচ্ছতা ও নিয়মতান্ত্রিকতাই তাকে সবার কাছে করে তুলেছে গ্রহণযোগ্য।

তৃণমূল পর্যায়ের একজন ছাত্রনেতা থেকে রাষ্ট্রপতির পদে আসীন হওয়া এই রাজনীতিবিদের জন্য গর্বিত কিশোরগঞ্জবাসী। সেইসঙ্গে আজকের এ দিনটি তাদের জন্য আনন্দেরও।

চলতি মেয়াদের প্রথম বছর পূর্তিতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। বলেছেন, দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে মানুষের ভালোবাসাই তার শ্রেষ্ঠ পাওয়া। তবে দুঃখজনক হলেও সত্য, আজকের রাজনীতি ও কিছু কিছু রাজনীতিবিদের মধ্যে ত্যাগ ও আদর্শের অঙ্গীকার খুঁজে পাওয়া যায় না। সবাই কেমন যেন নিজের ভাগ্য বদলের অসম দৌড়ে ব্যস্ত। প্রচলিত এই রাজনীতির সংস্কার করা না গেলে দেশ থেকে সুন্দরের চর্চা হারিয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আমার জীবনে আর কোনও চাওয়া-পাওয়া নেই। ভাটি-বাংলার এক মধ্যবিত্ত কৃষক পরিবারের সন্তান হয়েও শুধু বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনায় অটল থাকার কারণে মহান সৃষ্টিকর্তার অনুগ্রহে আজ আমি এই পর্যায়ে এসেছি। জীবনে কোনোদিন বিত্ত-বৈভবকে প্রাধান্য দেইনি। এলাকার মানুষকে ভালোবেসেছি বলেই তারাও উজাড় করে আমাকে ভালোবেসেছে। ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়া বা নিজের আখের গোছানো নিয়ে কখনও চিন্তা করিনি।

প্রসঙ্গত, আবদুল হামিদ স্পিকারের দায়িত্বে থাকার সময় নিজের বিচক্ষণতা দিয়ে সব দলের কাছে গ্রহণযোগ্যতা প্রমাণ করেছেন। এরপর প্রথম মেয়াদে রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে আবারও নিজের কর্মকাণ্ড দিয়ে সব দল ও মতের মানুষের কাছে একজন অসাধারণ যোগ্যতাসম্পন্ন রাষ্ট্রপতি হিসেবে নিজের ইমেজ গড়ে তোলেন। এই যোগ্যতা ও বিচক্ষণতাই তাকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ এবং দলের সভাপতির কাছে বিশ্বাসযোগ্য ব্যক্তিত্বে পরিণত করে। কিশোরগঞ্জের হাওর জনপদের ভূমিপুত্র, অনুসরণীয় ও বিরল রাজনীতির বরপুত্র আবদুল হামিদ টানা দ্বিতীয়বার রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন। ভারতীয় উপমহাদেশে একই ব্যক্তির দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ার ঘটনা এটিই প্রথম।

আবদুল হামিদের জন্ম হাওর উপজেলা মিঠামইনের কামালপুর গ্রামে। ১৯৪৪ সালের ১ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার বাবা হাজি মো. তায়েব উদ্দিন ও মা মোছা. তমিজা খাতুন। তার শৈশব কেটেছে নিজ গ্রাম কামালপুরে।

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি