ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

ধ্বংসের পথে ঐতিহাসিক দুবলহাটি রাজবাড়ি (ভিডিও)

প্রকাশিত : ১৪:৫৫ ২৪ মে ২০১৯ | আপডেট: ১৫:০৭ ২৪ মে ২০১৯

যথাযথ সংরক্ষণের অভাবে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে নওগাঁ সদরের ঐতিহাসিক দুবলহাটি রাজবাড়ি। বর্তমানে রাজবাড়ি পরিণত হয়েছে মাদকসেবী আর অপরাধী চক্রের অভয়ারন্যে। এরপরও রাজবাড়ির অপূর্ব নির্মাণ শৈলী আর সৌন্দর্য দেখতে প্রতিদিনই আসছে অসংখ্য দর্শনার্থী।

১৭৯৩ সালে লর্ড কর্ণওয়ালিসের কাছ থেকে ১৪ লাখ ৪শ’ ৯৫ টাকা দিয়ে এই জমিদারীটি নেন রাজা কৃষ্ণ নাথ। পরবর্তীতে ১৮৫৩ সালে রাজা হরনাথ রায়ের আমলে দুবলহাটি জমিদারির বিস্তার ঘটে। এ আমলেই বাড়ে রাজপ্রাসাদের সৌন্দর্য্যম নির্মিত হয় নাট্যশালা, প্রজাদের জন্য খনন করা হয় বেশ কয়েকটি সুপেয় পানির পুকুর।

১৮৬৪ সালে এই জামিদার পরিবারের পরিবারের উদ্যোগে একটি স্কুল স্থাপন করা হয়। পরবর্তীতে স্কুলটির নামকরন করা হয় ‘রাজা হরনাথ উচ্চ বিদ্যালয়।’ জমিদারী প্রথা বিলুপ্ত হওয়ার পর ১৯৫০ সালে রাজা হরনাথ রায় চৌধুরীর বংশধররা সপরিবারে ভারতে চলে যান। কালের সাক্ষী হয়ে থেকে যায় সুবিশাল রাজপ্রাসাদটি।

রোমান স্থাপত্য শৈলীতে নির্মিত রাজবাড়িতে ছিল ৭টি আঙিনা, ৩শ’টি ঘর এবং প্রাসাদের ভিতরে ভবনগুলো কোনটি তিন আবার কোনটি চারতলা। প্রাসাদে ছিল রাজরাজেশ্বরী মন্দির, সান বাধানো ইঁদারা, বিশাল গোবিন্দ পুকুর, সান বাঁধানো ঘাট। পুকুরের পূর্ব পাড়েই ছিল নাট্যশালা। নাট্যশালার কাছে কালি মন্দির। এর পাশেই বাগানবাড়ি। সবই আজ বিলুপ্তপ্রায়।

কালের সাক্ষী ২শ’ বছরের পুরনো এই রাজবাড়িটি বর্তমানে মাদকসেবী, অপরাধীচক্রের অভয়ারন্য এবং গো-চারণ ভ’মিতে পরিণত হয়েছে।

ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন এই রাজবাড়িটি সংরক্ষণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।
সিংকঃ মিজানুর রহমান, জেলা প্রশাসক, নওগাঁ

বিস্তারিত দেখুন ভিডিওতে :

এসএ/

 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি