ঢাকা, রবিবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, || আশ্বিন ১২ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

নওগাঁর হাসাইগাড়ী বিলের আস্তান মোল্লা সড়ক সংস্কার শুরু    

নওগাঁ প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৮:৫৫ ১১ আগস্ট ২০২০

নওগাঁ সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী হাঁসাইগাড়ী বিলের ঢেউয়ের প্রভাবে আস্তান মোল্লা সড়কের দু'পাশে ভাঙন ধরেছে। এই বছর বন্যায় ইতোমধ্যে সড়কের একাংশ ভেঙে বিলের সঙ্গে বিলীন হয়ে গেছে। ঐতিহ্যবাহী সড়কটিকে ভাঙনের কবল থেকে রক্ষা করতে স্থানীয় জনগণ ব্যক্তি উদ্যোগে বাঁশের খুঁটি ও কচুরিপানা দিয়ে সড়কটি রক্ষার চেষ্টা করছেন যা একেবারে অসম্ভব এবং অপ্রতুল। 

স্থানীয় সাংসদ ও উচ্চ কর্মকর্তারা রাস্তার ক্ষতিগ্রস্থ অংশ পরিদর্শন করেছেন এবং ওই রাস্তায় সকল প্রকার যানবাহন চলাচল স্থগিত করেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, প্রায় এক দশক আগে প্রয়াত জননেতা আব্দুল জলিল এমপির উদ্যোগে হাঁসাইগাড়ী অথৈ জলের মাঝে নির্মাণ করা হয় সড়কটি। সড়কটি হাঁসাইগাড়ী, শিকারপুরসহ কয়েকটি ইউনিয়নের সাথে নওগাঁ জেলা সদরের একমাত্র যোগাযোগের রাস্তা হলেও হাঁসাইগাড়ী বিশাল জলরাশীর মধ্যদিয়ে নির্মিত দীর্ঘ প্রায় ২০ কি.মি এই সড়ক এখন নওগাঁ জেলার অন্যতম প্রধান বিনোদন কেন্দ্রে পরিনত হয়েছে। বিশাল এ বিলের বুক চিরে নির্মিত দৃষ্টিনন্দন সড়ক এবং বিশাল জলরাশির খেলা দেখতে প্রায় ৭ কি. মি অংশে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থী ভীর জমাচ্ছেন। দর্শনার্থীদের এই সংখ্যা এতোটাই বেড়েছে যে, বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দীর্ঘ এই পথ দর্শনার্থীদের ভীড়ে পাড়ি দেয়া একেবারে অসম্ভব। 

সড়কটি নির্মাণের পর থেকে বিলের অথৈ জলের ঢেউ প্রতিরোধে নেওয়া হয়নি কোন কার্যকর ব্যবস্থা। ফলে বর্ষায় ঢেউয়ের আঘাতে ক্রমাগত ভাঙছে সড়কটির এক পাশ। যেসব স্থানে ব্লক দেওয়া ছিলো তা অনেক পুরাতন হওয়ায় নষ্ট হয়ে ভেঙ্গে যাচ্ছে রাস্তার মাটি। ইতিমধ্যেই ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে রাস্তার পাশের স্টিট লাইটগুলো। বিলের পানি কমার পর যদি রাস্তাটি উচু করে দু'পাশ দিয়ে মেট্টিসিন ও ব্লক দেওয়া না হয় তাহলে আগামী বছর এই রাস্তাটির কোন অস্তিত্ব থাকবে না বলে আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাঁশ এবং কচুরিপানা দিয়ে সড়ক রক্ষার কাজে ব্যাস্ত স্থানীয় হাঁসাইগাড়ী ইউনিয়ন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নওগাঁর ভীমপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অহিদুল ইসলাম  বলেন,‘প্রয়াত জননেতা আব্দুল জলিল এমপির সপ্নের সড়ক এটি। প্রতি বছর ঢেউ আর বন্যার পানিতে  ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে হুমকির মুখে এই সড়কটি। দীর্ঘদিন যাবত এলজিইডি থেকে সিসি ব্লক বা মেট্রিসিনসহ সড়ক প্রশস্থ ও মেরামতের কোন কাজ না করায় সড়কটি ভেঙে যাচ্ছে। তিনি সড়কটি সংস্কারে স্থানীয় সাংসদ ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। স্থানীয় হাঁসাইগাড়ী ইউনিয়ন আ'লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল  সড়কটি প্রশস্ত করাসহ সিসি ব্লক দিয়ে নির্মাণ করে পর্যটনবান্ধব করার দাবী জানান। 

তিনি বলেন, গত সোমাবার থেকে এই সংস্কার কাজ চলছে। আপাতত ভাঙন রোধ করার লক্ষে যে কযেকদি লাগবে,তা এলাকার জনসাধারণ মিলে মিশে করবে বলে জানান তিনি।

নাটোর থেকে আসা পর্যটক আব্দুল হালিম, জয়পুরহাট থেকে আসা গোলাম রাব্বানী, বগুড়া থেকে আসা আব্দুস সালাম বাবুসহ অনেকেই বলেন বিলের সৌন্দর্যবর্ধনসহ রাস্তাটি উচু করে পাশ দিয়ে পর্যটকদের বসার ব্যবস্থা,ঝড়-বৃষ্টি থেকে রক্ষার জন্য ছাউনি স্থাপনসহ আধুনিক পর্যটক কেন্দ্র পরিণত করার দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত। কারণ এখানে আসা পর্যটকদের উপর নির্ভর হয়ে পড়েছে স্থানীয় শত শত মানুষ। স্থানীয় মানুষরা কর্ম খুঁজে পেয়েছেন। তাই স্থানটিকে আরো উন্নত করা প্রয়োজন। 

এলজিইডি নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাকসুদুল আলম বলেন ভাঙ্গনের বিষয়টি সরেজমিনে দেখার জন্য স্থানীয় সাংসদ ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জনসহ আমরা সড়কটির ক্ষতি গ্রস্ত অংশগুলো পরিদর্শন করেছি। এটি সংস্কারে একটি প্রকল্প প্রস্তাবনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। প্রকল্পটি অনুমদিত হলে পানি কমে যাওয়ার খুব অল্প সময়ের মধ্যে এর সংস্কার কাজ শুরু করা সম্ভব হবে বলে আসা করছি।  
কেআই//


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি