ঢাকা, রবিবার   ১৮ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

নিখোঁজের পাঁচদিন পর নারীর পাঁচ টুকরা লাশ উদ্ধার 

গাজীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৯:৫১ ১৩ আগস্ট ২০১৯ | আপডেট: ১৯:৫৬ ১৩ আগস্ট ২০১৯

নিখোঁজের পাঁচদিন পর গাজীপুরের শ্রীপুরের গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় একটি আবদ্ধ ঘর থেকে মাথা,পা বিহীন শরীরের পাঁচ টুকরা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজ হওয়া নারীর নাম সুমি আক্তার। 

এ ঘটনার পর থেকেই নিখোঁজ সুমি আক্তারের স্বামী মামুন পলাতক রয়েছে। পুলিশের ধারণা স্ত্রী (সুমি) কে খুনের পর স্বামী পালিয়ে গেছে।

জানা গেছে, শ্রীপুরের গড়গড়িয়া মাস্টার বাড়ির এলাকায় ভাড়া বাড়িতে থেকে স্বামী ইলেকট্রিক মিস্ত্রি ও স্ত্রী স্থানীয়  একটি কারখানায় চাকরি করতেন।

স্বজন ও পুলিশ সূত্র জানায়, ঈদুল আজহার ছুটিতে গত (বৃহস্পতিবার) সুমি বাড়িতে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সুমি বাড়িতে না ফেরায় তার ছোট বোন বৃষ্টি আক্তার ভাড়া বাড়িতে এসে তাকে খোঁজ করেন। কিন্তু ভাড়া বাড়িতে পাওয়া যায়নি তাকে। পরে তার স্বামী মামুনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে সে বাড়িতে গেছে বলে জানায়। 

মামুনের কথায় আশ্বস্ত হয়ে সুমির পরিবার অপেক্ষা করতে থাকে। শনিবার পর্যন্ত সুমি বাড়ি না ফেরায় তারা আবারও  স্বামী মামুনকে সাথে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে এসে খোঁজ করেন। কিন্তু খুঁজতে এসে হঠাৎ মামুন পালিয়ে যায়। এরপর থেকে মামুনের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। সে সময় ঘরের একটি ওয়ারড্রোব থেকে পঁচা গন্ধ আসে। পরে সেখানে পলিথিনে পেঁচানো অবস্থায় মাংসের টুকরা উদ্ধার করেন তারা। নিখোঁজ সুমির বোন বৃষ্টি আক্তারের দাবি টাকার জন্য মামুন তার বোনকে খুন করেছে। 

এঘটনায় গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার জানান,উদ্ধার হওয়া মাংসের টুকরাগুলো পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে।
কেআই/ 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি